প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গী নিয়ে মধুর সমস্যায় বিসিবি

আক্তারুজ্জামান : ওয়ানডে সিরিজের প্রস্তুতি নিতে গতকাল বিকেএসপিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলতে নেমেছিল বাংলাদেশ। সেখানে সেঞ্চুরি করেছেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারও। ফর্মে আছেন ইমরুল কায়েস ও লিটন দাস। এমতাবস্থায় জাতীয় দলে তামিমের সঙ্গী কে হবেন, এটা নিয়ে মধুর এক সমস্যায় পড়তে যাচ্ছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচকগণ।

এশিয়া কাপের সেঞ্চুরির পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৮৩ রান করা লিটনকে উপেক্ষা করতেও ভাবতে হবে টিম ম্যানেজমেন্টকে। তামিমকে তো আর বাদ রেখে দল গঠন করা সম্ভব না। কিন্তু সবাই যখন ফর্মে, তখন তামিমের সঙ্গী কে হবেন? ইমরুল, লিটন নাকি সৌম্য? বাদ দেয়া যাচ্ছে না টেস্ট অভিষেকে রাঙানো সাদমান ইসলামকেও। যদিও তাকে না হয় ওয়ানডে সিরিজে বাইরে রাখা যাচ্ছে। কিন্তু শুরুতেই যে চার ওপেনারের কথা বলা হলো, তাদের তিনজনকে তো নিতেই হবে টপ অর্ডার সাজাতে।

টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য এই কষ্টসাধ্য কাজের ক্ষেত্রে এখনো চলছে আলোচনা। বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন এখনো বলতে পারছেন না, তামিমের সঙ্গী কে হবেন। তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে। এখনো ঠিক করা হয়নি তামিমের সঙ্গে কে ওপেন করবে। এটা আগামীকাল ঠিক করা হবে।’

বিকেএসপিতে প্রস্তুতি ম্যাচ চলাকালে লিটন সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘আমাদের জন্য অবশ্যই ভালো। চ্যালেঞ্জিংও বলতে পারেন। দলে এখন তিন-চারজন ওপেনার, তারা নিয়মিত ভালো খেলছে। দেখতেও ভালো লাগে। দল নির্বাচন অবশ্য পুরোপুরি টিম ম্যানেজমেন্টের ব্যাপার। আমি শতভাগ দেওয়ার চেষ্টা করব।’ দল নির্বাচন যে সহজ হবে না সেটা নান্নুর কথাতেই বোঝা গেলো। ‘টিম ম্যানেজমেন্টের হাতে অনেক বিকল্প। খারাপ করলে লিটনকে দলে রাখার মতো বিলাসিতা নিশ্চয়ই করবে না।’

গত এক মাসে লিটন তিন টেস্ট খেলে খুব একটা আলো ছড়াতে পারেননি। মিরপুর টেস্টে আকস্মিকভাবে দলে সুযোগ পেয়ে করেছেন ৫৪, আপাতত এটিই তার আত্মবিশ্বাসের জ্বালানি। তবে এসব নিয়ে তিনি ভাবছেন না। সৌম্য সরকার অবশ্য সদ্য শেষ হওয়া টেস্ট সিরিজের তিন ইনিংসে রান পেয়েছেন ০,১১ ও ১৯। জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ওয়ানডেতে করেছিলেন একটি শতক। ওই সিরিজের তিন ম্যাচেই ইমরুল ছিলেন অপ্রতিরোধ্য। তিন ম্যাচে তার রান ছিল ১৪৪, ৯০ ও ১১৫!

যে ইমরুল আছেন রানের ফোয়ারা মধ্যে তাকে ছাড়াও তো নির্বাচকদের জন্য বোকামি হবে। তবে সবকিছু মিলিয়ে নির্বাচকরা এমন কোনো সিদ্ধান্ত নেবেন না যাতে দলের রান চেপে যায়। আর ফর্মে থাকা ক্রিকেটারকে বাইরে রাখাটা বোকমিই হতে পারে। তবে দল কেমন হবে সেটা দেখার জন্য আগামীকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ