প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জামায়াত বিরোধিতা থেকে সরে এসে জাতির সঙ্গে প্রতারণা করেছে ঐক্যফ্রন্ট

হ্যাপি আক্তার : ভোটের লড়াইয়ে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নামছে নিবন্ধন ও প্রতীক হারানো জামায়াতে ইসলামী। এ নিয়ে শুরুতে আপত্তি তুললেও, এখন ভোটের হিসাবের কথা মাথায় রেখে অভিন্ন প্রতীক ব্যবহারে সমস্যা দেখছে না জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

তবে বিশষজ্ঞদের মতে, ভোটের রাজনীতিতে টিকিয়ে রাখতেই জামায়াতকে ধানের শীষ দিয়েছে বিএনপি। আর জামায়াত বিরোধিতা থেকে সরে এসে জাতির সঙ্গে প্রতারণা করেছে ঐক্যফ্রন্ট। জামায়াতের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, দলটির উদ্দেশ্য, লক্ষ্য এবং কর্মনীতির পরিপন্থী কোনো দলের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার অনুমোদন নেই। এখন প্রশ্ন উঠেছে, বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হয়ে কী গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করেছে জামায়াত? নাকি দল দুটির লক্ষ্য, উদ্দেশ্য একই?

এ বিষয়ে জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সদস্য মোহাম্মাদ সেলিম উদ্দিন বলেন, ‘সবার লক্ষ্য যখন অভিন্ন, তখন ভোটের মাঠে আমরা যদি কোনো দ্বিধা বিভক্তি সৃষ্টি করি এটা কারো জন্য কোনো কল্যাণ বয়ে আনবে না। এবার যেহেতু প্রধান লক্ষ্য আওয়ামী লীগের বিপক্ষে নির্বাচন করা। সেহেতু ঐক্যফ্রন্টসহ সকল দলই ধানের শীষ প্রতীক নিচ্ছে সেখানে আমরা আলাদা থাকলে সামগ্রিক নির্বাচনের জন্য ভালো হবে না।’

জামায়াতের আদর্শকে উৎসাহিত না করার কথা বলে আসছেন, বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। তাদের দাবি, ধানের শীষ এখন সরকারবিরোধী প্রতীকে পরিণত হয়েছে। তাই পরিবর্তনকামী হিসেবে জামায়াতও এই প্রতীক ব্যবহার করছে।
জামায়াতে ইসলামীর ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করা প্রসঙ্গে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘এই প্রতীকে যারা আছেন তাদের একমাত্র পরিচয় হচ্ছে ধানের শীষ। ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে এবং ঐক্যজোটের পক্ষ থেকে সবার দাবি কিন্তু একটাই, আমরা সেই দাবির প্রেক্ষিতেই এগোচ্ছি।’

বিএনপি ও জামায়াত একই পরিবারের দুই সদস্য। এই পরিবারভুক্ত হয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টও মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তিতে পরিণত হয়েছে বলে উল্লেখ করে রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে সেই ধরণের কয়েকটা রাজনৈতিক দল মিলে নির্বাচন করছে। তারা শুরুতে নানান রকমের কথা বললেও, এখন আমরা দেখতে পাচ্ছি তাদের এ সবকিছুই ছিলো বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা। আর এই বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার মাধ্যমে জনগণের সঙ্গে তারা প্রতারণা করছে।

জামায়াতের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা নিয়ে দেশে-বিদেশে প্রায়ই সমালোচনার মুখে পড়তে হয় বিএনপিকে। তারপরও বয়ে চলছে দুই দলের সম্পর্ক। ২০০১ সালে জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধে বিএনপি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দেড় যুগের এই বন্ধুত্ব পেয়েছে নতুন মাত্রা। প্রথমবারের মতো এবারই জামায়াতের প্রার্থীদের ধানের শীষের টিকিট দিয়েছে বিএনপি।
সূত্র : ডিবিসি নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ