প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কপিল শর্মার বিয়ের প্রস্তুতি শুরু, কার্ড দিয়ে চাইলেন আশীর্বাদ

মুসফিরাহ হাবীব : বলিউডে বিয়ের মৌসুম চলার মাঝেই এবার সে তালিকায় নাম লিখিয়েছেন কপিল শর্মা। ভারতের জনপ্রিয় এই উপস্থাপক ও কৌতুকশিল্পীর বিয়ের প্রস্তুতি এরই মধ্যে শুরু হয়েছে পাঞ্জাবের জলন্ধরে। কপিল বিয়ে করছেন তার দীর্ঘ দিনের বান্ধবী গিন্নি ছত্রাথকে।

১২ ডিসেম্বরে হবে বিয়ে। তার আগেই সম্পন্ন হয়েছে একটি প্রাক-বিবাহ অনুষ্ঠান। কপিলের হবু স্ত্রীর এ অনুষ্ঠানটি ছিল বেশ জমজমাট। পাঞ্জাবী বিয়ের অন্যতম প্রথার এ প্রাক-বিবাহ অনুষ্ঠানকে বলা হয় ‘ব্যাঙ্গল সেরেমনি’। অখণ্ড পূজাপাঠের পর হয় এ অনুষ্ঠান।

বিয়ের প্রস্তুতি চলার এ সময়েই কপিল ইনস্টাগ্রামে নিজের বিয়ের কার্ড পোস্ট করে অনুরাগীদের কাছ থেকে আশীর্বাদ চেয়েছেন। জানিয়েছেন, জলন্ধরে গিন্নির বাড়িতেই বসবে বিয়ের আসর।

কার্ডে লেখা আছে, “হৃদয়ের আনন্দ ও গুরুজনদের আশীর্বাদকে সঙ্গী করে আমি ও গিন্নি ভালবাসা, সন্মানের সঙ্গে একত্রে পথচলা শুরু করতে চলেছি আগামী ১২ ডিসেম্বর।” ২০১৭ সালে গিন্নি ছত্রাথকে নিজের বান্ধবী হিসেবে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচয় দেন কপিল। তারপর থেকে প্রায়ই তাদেরকে একসঙ্গে দেখা যেত।

গত মঙ্গলবার এ জুটির বিয়ের প্রথম অনুষ্ঠানে গিন্নির বাড়িতে অখণ্ড পূজাপাঠ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন আত্মীয়রা। পূজাপাঠ করেন গিন্নি। পোশাকও বেছে নেন পাঞ্জাবী বিয়ের সনাতনী ঘরানা বজায় রেখে। সকালে গিন্নি পরেন একটি ওয়াইন রঙের পোশাক। বিকালে পরেন লাল লেহেঙ্গা।

গিন্নি ব্যাঙ্গল সেরেমনির ছবিও পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। মায়ের সঙ্গে প্রাক-বিবাহের ফটোশুট করার পর পোস্ট করেন বাবার সঙ্গে ছবিও। আত্মীয়দের নিয়ে বিয়ের কয়েকদিন আগে এ অনুষ্ঠান করার চল রয়েছে পাঞ্জাবে। এদিন বরের বাড়ি থেকে কনের বাড়িতে আসা আত্মীয়-স্বজনরা কনের জন্য নিয়ে আসেন বালা বা ব্যাঙ্গল। সে বালাই দু’হাতে পরিয়ে দেওয়া হয় কনের।

আগামী ১০ ডিসেম্বরে কপিলের বোনের বাড়িতে হবে আরেকটি প্রাক-বিবাহ অনুষ্ঠান। সেখানে হবু স্বামী-স্ত্রী একসঙ্গে পূজাপাঠ করবেন। এসব আনুষ্ঠানিকতা শেষে ১২ ডিসেম্বর জলন্ধরে বিয়ের পর ১৪ ডিসেম্বর অমৃতসরে হবে কপিল-গিন্নির রিসেপশন অনুষ্ঠান। মুম্বাইয়ে বলিউডের সহকর্মী ও বন্ধুবান্ধবদের জন্যও ২৪ ডিসেম্বরে হবে বিশেষ আরেকটি রিসেপশন পার্টি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ