প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৩০০ আসনে চূড়ান্ত ভোটকেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ

ডেস্ক রিপোর্ট : একাদশ সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনের কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশের কাজ শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন। এবার দেশের ১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটারের জন্য প্রায় ৪০ হাজার ভোটকেন্দ্রে ভোটকক্ষ থাকবে দুই লাখেরও বেশি। ইসির উপ-সচিব আবদুল হালিম খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ৩০শে ডিসেম্বর ভোট হওয়ায় ৪ঠা ডিসেম্বরের মধ্যে সব কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ সম্পন্ন করতে হবে। ইসির নির্দেশনায় নির্ধারিত সময়েই ৩০০ আসনের সব কেন্দ্রের গেজেট সম্পন্ন করা হয়েছে। একাদশ সংসদ নির্বাচনে ১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটারের জন্য ৪০ হাজার ১৯৯টি ভোটকেন্দ্রের চূড়ান্ত তালিকা করা হয়। গত আগস্টে একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য ৩০০ আসনে ৪০ হাজার ৬৫৭টি সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্রের তালিকা হয়। সর্বশেষ দশম সংসদ নির্বাচনে ৯ কোটি ১৯ লাখ ভোটারের বিপরীতে ভোটকেন্দ্র ছিল ৩৭ হাজার ৭০৭টি।

৩০০ আসনে ভোটকক্ষ ছিল এক লাখ ৮৯ হাজার ৭৮টি। এবার দেশের ১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটারের জন্য প্রায় ৪০ হাজার ভোটকেন্দ্রে ভোটকক্ষ থাকবে দুই লাখেরও বেশি। ইসি উপ-সচিব বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তার পাঠানো ৩০০ আসনের সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের বিষয়ে নির্বাচন কমিশন অনুমোদন দিয়েছে। ১লা ডিসেম্বর থেকে কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ শুরু হয়েছে। নির্ধারিত সময়ে সব আসনের কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশের জন্য প্রেসেও পাঠানো হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে উপ-সচিব আবদুল হালিম খান স্বাক্ষরিত আসনভিত্তিক কেন্দ্রের গেজেটে ভোটকেন্দ্রের ক্রমিক নম্বর, ভোটকেন্দ্রের নাম ও অবস্থান, ভোটকক্ষের সংখ্যা, ভোটার এলাকা, পুরুষ ও মহিলাসহ মোট ভোটার সংখ্যা উল্লেখ রয়েছে। বিজি প্রেসের ওয়েবসাইটে দেখা যায়, ১লা ডিসেম্বর গোপালগঞ্জ জেলার গোপালগঞ্জ-৩ আসন দিয়েই কেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে ৩০০ আসনের গেজেট ৪ঠা ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকাশ করা হবে বলে জানান ইসি কর্মকর্তারা। গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, ১৯৭২-এর অনুচ্ছেদ ৮(২) অনুসারে নির্বাচনী এলাকার চূড়ান্ত ভোটকেন্দ্রের তালিকা সংশ্লিষ্ট সকলের জ্ঞাতার্থে প্রকাশ করার বিধান রয়েছে। ভোটের অন্তত ২৫ দিন আগে আসনভিত্তিক ভোটকেন্দ্রের গেজেট প্রকাশ করার আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে। ৩০শে ডিসেম্বর ভোট অনুষ্ঠিত হবে।
সূত্র : মানবজমিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ