Skip to main content

হাওলাদারের পদত্যাগপত্র, জাপার কেউ স্বতন্ত্র হলে বহিষ্কার

মো. ইউসুফ আলী বাচ্চু : জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদ পদত্যাগপত্র পার্টির চেয়ারম্যানের কাছে পাঠিয়েছন। অসুস্থ্যতার কারণে দায়িত্ব পালন করতে পারছেন না, যা পদত্যাগপত্রে উল্লেখ করেছেন। মঙ্গলবার রাজধানীর বনানী জাপা চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক বৈঠকে এমন কথা জানান নতুন মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা। তিনি বলেন, দল থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয় নাই। উনি নিজ থেকে পদত্যাগপত্র চেয়ারম্যানের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। জাতীয় পার্টির কেউ দলের মনোনয়নপত্র ছাড়া নির্বাচন করলে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে এমন হুশিয়ারি দিয়ে রাঙা বলেন, মনোনয়নপত্র দেওয়ার সময় বাতিল হতে পারে, সেই স্বাক্ষর নিয়ে রেখেছি। এ সময় প্রশ্ন করা হয় নির্বাচনের আগে এরশাদ অসুস্থ্য হয়ে জান এবং জাতীয় পার্টির মহাসচিব পরিবর্তন হন। এ দু’ঘটনার মধ্যে সম্পর্ক আছে কিনা? এই প্রসঙ্গে জাপা মহাসচিব বলেন, যদি প্রতিবার হয় তাহলে সম্পর্ক আছে মনে হচ্ছে। প্রতিবারে না হলে সম্পর্ক নেই। হাওলাদার আমাদের প্রেসেডিয়াম মেম্বার এখনো আছেন। অনাকাঙ্গিত ভাবে তার নামে মনোনয়ন বানিজ্য আসবে কেনো? এটা আমরা একটা কমিটির মাধ্যমে খুজে দেখবো। যদি কেউ এ ধরনের কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকেন তাহলে তার শাস্তির ব্যবস্থা আমাদের গঠনতন্ত্রে আছে বলেন রাঙা। মনোনয়ন বাণিজ্য নিয়ে জাতীয় পার্টির ইমেজ সঙ্কট হচ্ছে কিনা তা স্পষ্ট করেন নাই রাঙা। তবে ভোটের মাঠে নেতিবাচক প্রভাব কিভাবে মোকাবেলা করবেন? সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মনোনয়ন বানিজ্য কেউ করেছে কিনা তা আমার মনে হয় না। যদি কেউ করে থাকে তাহলে অল্প সময়ের কমিটি করে দেয়া হবে। জাতীয় ভাবে সারা দেশে যে সঙ্কট হচ্ছে ,তার সতত্যা না জেনে কাউকে ফাঁসি দেয়া যায় না।