Skip to main content

কর্তারপুর করিডরকে স্বাগত জানালো চীন

প্রত্যাশা প্রমিতি: ভারত ও পাকিস্তানের শিখ পথযাত্রীদের জন্য নির্মিত কর্তারপুর করিডরকে স্বাগত জানিয়েছে চীন। সোমবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং একটি নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন। এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

তিনি বলেন, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে আন্ত-সহযোগিতামূলক মনোভাব অত্যন্ত আনন্দের। দক্ষিণ এশিয়ার জন্য ভৌগলিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ এ দুইদেশের মধ্যে সুসম্পর্ক থাকা শুধু আঞ্চলিক শান্তিই বাড়াবে না, দুই দেশের সম্পর্কের স্থিতিশীলতা বিশ্বের উন্নয়ন ও শান্তির ক্ষেত্রেও ভূমিকা রাখবে। গেং শুয়াং আরো বলেন, আমরা আশা করছি দুইদেশের সম্পর্ক গভীর হবে। একই সাথে শান্তি ও শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য সংলাপের আয়োজন করবে বলেও আশা প্রকাশ করেন।

প্রসঙ্গত, পাক-ভারত আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণ এলাকায় অবস্থিত কর্তারপুরে শিখদের ধর্মগুরু নানক মৃত্যুর আগের শেষ ১৮ বছর কাটিয়েছিলেন। গুরুনানকের ৫৫০ তম জন্মবার্ষিকীকে সামনে রেখে একটি করিডর নির্মাণের জন্য আহ্বান জানায় ভারত। ১৯৮৭ সালে পাক-ভারত ভাগ হয়ে যাওয়ায় ভারতের শিখদের জন্য তাদের উপাসনালয়ে যাওয়ার রাস্তা সংকুচিত হয়ে যায়। সেদিক থেকে এ করিডরটি নির্মাণ দুই দেশের সাধারণ জনগণের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

অন্যান্য সংবাদ