প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘আ.লীগ ৩০টির বেশি আসন পাবে না যারা বলছেন, তারা বালখিল্য মন্তব্য করছেন’

আশিক রহমান : সাবেক রাষ্ট্রদূত ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ওয়ালিউর রহমান বলেছেন, আওয়ামী লীগ ৩০টির বেশি আসন পাবে না বলে যারা প্রচার করছেন বা বলছেন, এটা তাদের বালখিল্যতা ছাড়া কিছু নয়। কারণ আওয়ামী লীগ স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি। নির্বাচনে জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে দলটি আবারও রাষ্ট্রক্ষমতায় আসবে। এ ব্যাপারে আমি নিশ্চিত। কিন্তু এর মানে এই নয় যে, অন্যরা আশা করতে পারেন না যে, আমরা জিতবো না। অবশ্যই তাদের যোগ্য প্রার্থীরা জিতবেন। আওয়ামী লীগ তথা মহাজোটও চায় তাদের যোগ্যপ্রার্থীরা নির্বাচিত হয়ে সংসদে আসুক। কারণ একটা সুসংগঠিত বিরোধীদল দরকার সংসদে। বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে এগিয়ে নেওয়ার স্বার্থে। দেশের সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিত করার স্বার্থে।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, বিএনপি বা ঐক্যফ্রন্ট নেতারা যদি একটা সততার মধ্যে থাকেন, মিথ্যার আশ্রয় না নেন, তাহলে নির্বাচনে তারা সম্মানজনক আসন পাবেন বলেই ধারণা আমার। তবে এজন্য তাদের অসত্যের পথ পরিহার করতে হবে। কিন্তু যেভাবে তারা মানুষকে ভয় দেখাচ্ছেন, যে ভাষায় কথাবার্তা বলছেন, তাতে সহিংসতা সৃষ্টির আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। গণতন্ত্রবিরোধী কিছু হলে মানুষ নিশ্চয়ই তা গ্রহণ করবে না।

এক প্রশ্নের জবাবে ওয়ালিউর রহমান বলেন, আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সংলাপ হলো। লক্ষ্য সব দল যেন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে এবং সবার কাছে গ্রহণযোগ্য একটি নির্বাচন হয়। সেই লক্ষ্যে এখন সব দল নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েছেন। তাদের কর্মকা- পরিচালিত করেছে। প্রায় প্রতিটি দলের সঙ্গেই প্রধানমন্ত্রী সংলাপ করেছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিটি দলকে আস্থায় নেওয়ার চেষ্টা করলেন সংলাপের মাধ্যমে। বলেছেন, নির্বাচনে আসেন আপনারা। নির্বাচন হবে। অংশগ্রহণ করেন। নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে। কিন্তু এখন তারা অনেক কথা বলছেন।

তিনি আরও বলেন, ঐক্যফ্রন্টের অনেকেই রাজনৈতিক সুবিধাবাদী মনোভাব থেকে একত্রিত হয়েছেন। কিছু মানুষ বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ ছেড়ে অন্য দলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। অথচ তারা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে জীবনের অনেকটা সময় কাটিয়েছেন। কিন্তু শেষ বয়সে এসে তারা একটা লোভ, একটা অস্বাভাবিক সোনার হরিণ ধরার জন্য বিএনপি-জামায়াতের মতো জোটের সঙ্গে ভিড়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত