প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইসিতে অাপিলকারীদের ভিড়

সাইদ রিপন: সারাদেশে অাসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগ্রহী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে ৭৮৬ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এসব সংক্ষুব্ধ প্রার্থীরা আপিলের জন্য নির্বাচন কমিশনে (ইসি) ভিড় করছেন।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) সকাল আগারগাঁওয়ের নির্বাচন কমিশন ভবনের অভ্যর্থনায় অাপিল আবেদন নেয়া হচ্ছে। সকাল থেকে ইসিতে বিপুল সংখ্যক প্রার্থী ও তাদের অনুসারিরা জড়ো হন। তারা সাদা কাগজে তথ্য-প্রমাণসহ ইসিতে অভিযোগ দায়ের করছেন।

মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে ইসিতে অাসেন ইমরান এইচ সরকার। তিনি বলেন, মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে উদ্দেশ্যেপ্রনোদিতভাবে। যারা বিভিন্ন দলের বাহিরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তাদের মনোনয়ন বাতিলের মাধ্যমে তাদের নিরুৎসাহিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমার মনোনয়ন বাতিলের বিষয়ে বলা হয়েছে আমি যে তালিকা দিয়েছি তাতে গ্যাপ আছে। এজন্য আমারটা বাতিল করা হয়েছে। যে কারণে আপিল করতে এসেছি আজ। এছাড়াও যাদের তালিকা অনুযায়ী ১৫৯ এর জায়গায় ৬০ হয়ে গেছে এসব সামান্য ভুলের জন্যও মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

আজ আপিল করবো তবে আমি বিশ্বাস করি এই আপিলে আমি বিজয়ী হব বলেন ইমরান।

ইসির কর্মকর্তারা জানান, প্রার্থিতা বাতিল হলে সংক্ষুব্ধরা সোমবার থেকে বুধবার (৩-৫ ডিসেম্বর) মধ্যে ইসিতে অভিযোগ করতে পারবেন। ইসি ৬-৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত আপিলগুলোর শুনানি করে সিদ্ধান্ত দেবে।

এ বিষয়ে ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান জানান, রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তিরা প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর অভিযোগ দাখিল করতে পারবেন। এটা করতে হবে আগামী ৩, ৪ ও ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে। আর কমিশন প্রার্থীদের অভিযোগ আমলে নিয়ে ৬, ৭ ও ৮ ডিসেম্বর শুনানি করে সিদ্ধান্ত দেবেন। এক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনই আপিল কর্তৃপক্ষের ভূমিকা পালন করবেন।

এর আগে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তার মনপুত না হলে সংক্ষুব্ধরা আপিল কর্তৃপক্ষের কাছে আপিল করতে পারবেন। সেখানেও যদি তিনি সন্তুষ্ট না হন তাহলে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি আদালতেও যেতে পারবেন।

প্রসঙ্গত, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য সারা দেশে ৩০০ আসনে মোট ৩ হাজার ৬৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

তফিসল অনুযায়ী, একাদশ সংসদে ভোটগ্রহণ করা হবে ৩০ ডিসেম্বর। প্রত্যাহার ৯ ডিসেম্বর এবং প্রতীক বরাদ্দ ১০ ডিসেম্বর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ