প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জামায়াতের ২৩ জনের মনোনয়ন বৈধ, ১৪ জনের বাতিল

মানবজমিন :  বিএনপি প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচনে যাওয়া জামায়াতে ইসলামীর ২৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ২৩ জনের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষিত হয়েছে। তবে দলের সিদ্ধান্ত ও সিদ্ধান্ত ছাড়া আরো ৩১ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেছিলেন। তাদের মধ্য থেকে ১৪ জনের প্রার্থিতা বাতিল হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে জামায়াতে নায়েবে আমীর অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ জন প্রার্থীর কারও প্রার্থিতা বাতিল হওয়ার খবর আমার কাছে নেই। তবে ১৪ জন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হওয়ার খবর শুনেছি। আমি এলাকায় আছি। পূর্ণাঙ্গ তথ্যটি কেন্দ্র বলতে পারবে বলে জানান তিনি। তবে সন্ধ্যায় দিনাজপুর-১ আসনের জামায়াতের প্রার্থী মোহাম্মদ হানিফের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে।

আয়কর রিটার্ন সংক্রান্ত জটিলতায় তার প্রার্থিতা বাতিল হয়েছে বলে জানা গেছে।

বৈধ হওয়া জামায়াতের প্রার্থীরা হলেন- ঠাকুরগাঁও-২ মাওলানা আবদুল হাকিম, দিনাজপুর-৬ মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, নীলফামারী-২ মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মন্টু, নীলফামারী-৩ মোহাম্মদ আজিজুল ইসলাম, গাইবান্ধা-১ মাজেদুর রহমান সরকার, সিরাজগঞ্জ-৪ মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান, পাবনা-৫ মাওলানা ইকবাল হুসাইন, ঝিনাইদহ-৩ অধ্যাপক মতিয়ার রহমান, যশোর-২ আবু সাঈদ মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন, বাগেরহাট-৩ অ্যাডভোকেট আবদুল ওয়াদুদ, বাগেরহাট-৪ অধ্যাপক আবদুল আলীম, খুলনা-৫ অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, খুলনা-৬ মাওলানা আবুল কালাম আযাদ, সাতক্ষীরা-২ মুহাদ্দিস আবদুল খালেক, সাতক্ষীরা-৩ মুফতি রবিউল বাশার, সাতক্ষীরা-৪ গাজী নজরুল ইসলাম, পিরোজপুর-১ আলহাজ শামীম সাঈদী, ঢাকা-১৫ ডা. শফিকুর রহমান, সিলেট-৫ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, সিলেট-৬ মাওলানা হাবিবুর রহমান, কুমিল্লা-১১ ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহের, চট্টগ্রাম-১৫ আ ন ম শামসুল ইসলাম ও কক্সবাজার-২ হামিদুর রহমান আযাদ।

জোট থেকে পাওয়া রংপুর-৫ আসনে অধ্যাপক গোলাম রব্বানীর মনোনয়নপত্র জমা না দেয়ার অভিযোগ ওঠার পর শনিবার নির্বাচন কমিশনে তার ফরম জমা দেয়া হয়েছে বলে জামায়াতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। শনিবার জামায়াত এক বিবৃতিতে জানান, শনিবার রংপুর-৫ মিঠাপুকুর আসনের অধ্যাপক গোলাম রব্বানীর পক্ষে দুইজন আইনজীবী, একজন প্রস্তাবক ও সমর্থক তার মনোনয়নপত্র নির্বাচন কমিশনের কার্যালয়ে জমা দিতে যান। নির্বাচন কমিশনের কার্যালয় অধ্যাপক গোলাম রব্বানীর মনোনয়নপত্রটি রেজিস্ট্রারে তালিকাভুক্ত করা হয়। কমিশনের কার্যালয় থেকে জানানো হয় যে, মনোনয়নপত্র সম্পর্কে ২রা ডিসেম্বর চূড়ান্ত ফলাফল জানানো হবে। সর্বশেষ তার প্রার্থিতার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত পাওয়া যায়নি।

এ ছাড়াও জামায়াত দলীয় সিদ্ধান্তে আরো ১৮টি আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী দিয়েছে। তারা হলেন- লালমনিরহাট-১ আবু হেনা মো. এরশাদ হোসেন সাজু, গাইবান্ধা-৩ মাওলানা নজরুল ইসলাম, গাইবান্ধা-৪ ডা. আবদুর রহীম, বগুড়া-৪ তায়েব আলী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ নুরুল ইসলাম বুলবুল, রাজশাহী-১ সাবেক এমপি মুজিবুর রহমান, নাটোর-১ তাসনীম আলম, পাবনা-৪ আবু তালেব, চুয়াডাঙ্গা-২ মোহাম্মদ রুহুল আমিন, যশোর-১ মাওলানা আজিজুর রহমান, যশোর-৬ অধ্যাপক মুক্তার আলী, সাতক্ষীরা-১ অধ্যক্ষ ইজ্জত উল্লাহ, পটুয়াখালী-২ ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ, ময়মনসিংহ-৬ জসিম উদ্দিন, কুমিল্লা-৯ এএফএম সোলায়মান চৌধুরী, চট্টগ্রাম-১০ শাহজাহান চৌধুরী, চট্টগ্রাম-১৬ জহিরুল ইসলাম। দলের সিদ্ধান্তের বাইরে আরো ১৩ জন স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছে বলে জানান একটি সূত্র। স্বতন্ত্র হিসেবে এই ৩১ জনের মধ্যে ১৪ জনের প্রার্থিতা বাতিল হওয়ার খবর পেয়েছে দলটি। স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার জন্য মনোনয়নপত্রের সঙ্গে ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর দাখিল করতে হয়। জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল হওয়ায় প্রার্থীদের অধিকাংশের এ ধারায় মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

উৎসঃ মানব জমিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ