প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রার্থী শূন্য বিএনপির চার আসন!

শিমুল মাহমুদ: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় প্রার্থী শূন্য হয়ে পড়েছে বিএনপির চার আসন! বগুড়া-৭, ঢাকা-১, শেরপুর-১, মানিকগঞ্জ-২। উল্লেখ্য ৪ আসনে বিএনপির প্রার্থী ছিল ১১ জন ও বিদ্রোহী ১ জন।
রোববার সারাদেশে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা। ফলে প্রার্থী শূন্য হয়ে পড়ে বিএনপির চার আসন!

বগুড়া-৭ আসনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পাশাপাশি গাবতলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোরশেদ মিলটনকে বিকল্প প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছিল বিএনপি। তাছাড়া আসনটিতে বিএনপির বিদ্রোহী হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন শাজাহানপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সদস্য সরকার বাদল। যদিও এ আসনে আওয়ামী লীগ কোনও প্রার্থী দেয়নি।

ঢাকা-১ আসনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন প্রার্থীরা ছিলেন- ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার মেয়ে অন্তরা সেলিমা হুদা, নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক এমপি ফাহিমা হোসাইন জুবলী ও নাজমুল হুদার সাবেক প্রেস সেক্রেটারি তারেক হোসেন।

শেরপুর-১ (সদর) আসনে ৯ প্রার্থীর মধ্যে বিএনপির ৩ প্রার্থীর মনোনয়পত্র বাতিল হয়েছে। চার ব্যাংকের ঋণখেলাপির অভিযোগে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. হযরত আলীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এ ছাড়া জেলা যুবদল সভাপতি শফিকুল ইসলাম মাসুদ ও সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ফজলুল কাদের মনোনয়নপত্রে বিএনপির প্রার্থী বলে উল্লেখ করলেও দলীয় মনোনয়নের চিঠি সংযুক্ত না করায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

মানিকগঞ্জ-২ আসনে বিএনপির মনোনিত প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য মঈনুল ইসলাম খান শান্ত ও সিংগাইর উপজেলা পরিষদেও চেয়ারম্যান আবিদুর রহমান রোমানের মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়ে গেছে।

বাতিল হওয়া আসনগুলো ফিরে পেতে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে আপিল করার সুযোগ এখনও রয়েছে। সেখানে আপিলে মনোনয়ন ফিরে না পেলে সর্বশেষ আদালতেও যেতে পারবেন প্রার্থীরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ