প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ওয়ানডে ইতিহাসে যে ৭ জন সর্বাধিক স্ট্যাম্পিং আউট করেছেন

আবু সুফিয়ান শুভ: ক্রিকেট খেলায় নিঃসন্দেহে সবচেয়ে বেশি পরিশ্রমী হতে হয় উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা উইকেটরক্ষককে। কারণ একজন উইকেটরক্ষককে প্রতিটি বলের উপরই কড়া নজর রাখতে হয়। ফিল্ডিংয়ে থাকা ১১ জন প্লেয়ারের মধ্যে তাকেই সবচেয়ে বেশি বল তালুবন্দী করতে হয়। এমনকি শত গরমেও তাকে পুরো ইনিংস জুড়েই তাকে প্যাড, গার্ড ও গ্লাভস পরে থাকতে হয়। কখনো বা স্পিন বোলিংয়ের সময় মাথায় হেলমেটও পরিধান করতে হয়।

একজন উইকেটরক্ষকের দায়িত্ব শুধু উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে বল তালুবন্দী করা নয়, ব্যাট হাতেও তাকে উইকেটের সামনে দাঁড়িয়ে বোলারদের মোকাবিলা করতে হয়। মোটকথা, একজন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানকে উইকেটের সামনে এবং পেছনে দাঁড়িয়ে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হয়। চলুন, তবে দেখে নেয়া যাক, ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বাধিক স্ট্যাম্পিংয়ে আউট করেছেন যে ৭ জন উইকেটরক্ষক, তাদের পরিচিতি।

৭. মুশফিকুর রহিম (৪২ বার)
বাংলাদেশের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান হলেন মুশফিকুর রহিম। ‘মিস্টার ডিপেন্ডেবল’ খ্যাত এই অভিজ্ঞ খেলোয়াড় বিশ্বসেরা উইকেটরক্ষকদের মধ্যেও অন্যতম। দেশের হয়ে অসাধারণ উইকেটকিপিং ও দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের মাধ্যমে দলের নির্ভরযোগ্য একজন সদস্যে পরিণত হয়েছেন তিনি।

২০০৬ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষকের। অভিষেকের পর থেকে ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তিনি ১৯২ টি ম্যাচে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়েছেন এবং সর্বমোট ৪২ বার স্ট্যাম্পিং করে ব্যাটসম্যানদের সাজঘরে পাঠিয়েছেন। যা সর্বাধিক স্ট্যাম্পিং করা উইকেটরক্ষকদের তালিকায় ৭ নম্বরে জায়গা করে দিয়েছে তাকে। পাশাপাশি উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে তিনি মোট ১৫৫ টি ক্যাচ তালুবন্দি করেছেন।

৬. নয়ন মঙ্গিয়া (৪৪ বার)
ভারতীয় উইকেটরক্ষক এম এস ধোনির পূর্বে ভারতের সফলতম উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ছিলেন নয়ন মঙ্গিয়া। ফিক্সিংয়ের ফাঁদে না পড়লে হয়তো তিনি তার ক্যারিয়ারকে আরও সমৃদ্ধ করতে পারতেন।

১৯৯৪ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষকের। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তিনি মোট ১৪০ টি ম্যাচে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়েছেন এবং সর্বমোট ৪৪ বার স্ট্যাম্পিং করে ব্যাটসম্যানদের পরাস্ত করেছেন। এছাড়া উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে ক্যারিয়ারে মোট ১১০ টি ক্যাচ তালুবন্দী করতে সক্ষম হয়েছেন।

 

৫. অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (৫৫ বার)
অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটের সর্বকালের সর্বসেরা ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষক অ্যাডাম গিলক্রিস্ট। শুধু দেশের হয়েই নয়, বিশ্ব ক্রিকেট ইতিহাসেও তিনি সেরাদের সেরা। অত্যন্ত ভদ্র ও সৎ একজন ক্রিকেটার হিসেবেই তার পরিচিতি ছিল।

১৯৯৬ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষকের। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তিনি ২৮৭ টি ম্যাচে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়েছেন এবং সর্বমোট ৫৫ বার স্ট্যাম্পিং করেছেন। পাশাপাশি ক্যারিয়ার জুড়ে মোট ৪১৭ টি ক্যাচ তালুবন্দী করে ব্যাটসম্যানদের প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠিয়েছেন। ২০০৮ সালে তিনি ওয়ানডে ক্রিকেট হতে অবসর গ্রহণ করেন।

 

৪. মঈন খান (৭৩ বার)
নব্বই দশকে পাকিস্তানের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক ছিলেন মঈন খান। ১৯৯২ সালে পাকিস্তানে বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি। এছাড়া বেশ কিছুদিন তিনি পাকিস্তান দলের অধিনায়কের দায়িত্বও পালন করেন।

১৯৯০ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষকের। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তিনি ২১৯ টি ম্যাচে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে সর্বমোট ৭৩ টি স্ট্যাম্পিং করেছেন। পাশাপাশি ক্যারিয়ার জুড়ে মোট ২১৪ টি ক্যাচ তালুবন্দি করে ব্যাটসম্যানদের পরাস্ত করেছেন তিনি।

৩. রমেশ কালুবিতরাণা (৭৫ বার)
১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপ জয়ী শ্রীলঙ্কা দলের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন রমেশ কালুবিতরাণা। আগ্রাসী ব্যাটিং স্টাইলের কারণেও তখনকার সময়ের বেশ পরিচিত একজন ক্রিকেটার ছিলেন তিনি।

১৯৯০ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষকের। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তিনি ১৮৯ টি ম্যাচে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে সর্বমোট ৭৫ টি স্ট্যাম্পিং করেছেন। পাশাপাশি ২০৬ টি ক্যাচ তালুবন্দী করে ব্যাটসম্যানদের পরাস্ত করেছেন তিনি। ২০০৪ সালে তিনি ওয়ানডে ক্যারিয়ার থেকে অবসর নেন।

 

 

২. কুমার সাঙ্গাকারা (৯৯ বার)
শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের সর্বকালের সেরা উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান হলেন কুমার সাঙ্গাকারা। বৈশ্বিক ক্রিকেট অঙ্গনেও তাকে সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তিনি শ্রীলঙ্কা দলের ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি দলের অধিনায়কের দায়িত্বও পালন করেছেন।

 

২০০০ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষকের। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তিনি ৪০৪ টি ম্যাচে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে সর্বমোট ৯৯ টি স্ট্যাম্পিং করেছেন এবং মোট ৩৮৩ টি ক্যাচ তালুবন্দী করে ব্যাটসম্যানদের সাজঘরে পাঠিয়েছেন। ২০১৫ সালে তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করেন।

১. এম এস ধোনি (১১৩ বার)
ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষক হলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। বিশ্বসেরা উইকেটরক্ষকদের তালিকায়ও তিনি স্থান করে নিয়েছেন। তিনিই একমাত্র অধিনায়ক, যিনি ক্রিকেটের সব ধরনের আসরে দলকে চ্যাম্পিয়ন করার গৌরব অর্জন করেছেন।

২০০৪ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান ও উইকেটরক্ষকের। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তিনি ৩২৭ টি ম্যাচে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে সর্বমোট ১১৩ টি স্ট্যাম্পিং করেছেন এবং মোট ৩০৬ টি ক্যাচ তালুবন্দী করে ব্যাটসম্যানদের প্যাভিলিয়নে পাঠিয়েছেন। যদিও বর্তমানে ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি, তবে দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় হিসেবে এখনও উইকেটের পিছনে ও সামনে দাঁড়িয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন এই সাবেক বিশ্বসেরা অধিনায়ক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ