প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মধ্যপ্রদেশ নির্বাচনে একঘন্টা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ছিল ইভিএম ভল্ট

আব্দুর রাজ্জাক: বাংলাদেশ-ভারতসহ গণতান্ত্রিক অনেক দেশের রাজনৈতিক বিতর্কের অন্যতম ইস্যু এখন ইলেক্ট্রিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)। বিতর্কের মধ্যেই ভারতের মধ্য প্রদেশে গত ২৮ নভেম্বরের প্রাদেশিক নির্বাচনে এই যন্ত্রটি ব্যবহার করেই ভোট গ্রহণ করা হয়েছে। ভোটের পরপরই অনিয়মের অভিযোগ করা হয়েছিল বিরোধী দলগুলোর পক্ষ থেকে। এরই মধ্যে দেশটির নির্বাচন কমিশন স্বীকার করেছে, ইভিএম মেশিনগুলো যেখানে রাখা হয়েছে সেই সুরক্ষিত ঘরটিতে ৩০ নভেম্বর সকাল ৮:১৯ থেকে ৯:৩৫ পর্যন্ত বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল যা অভূতপূর্ব। এনডিটিভি

ইভিএম মেশিনটি ব্যবহার করে শুধু একটি বোতাম চাপ দিয়ে সহজেই কাঙ্খিত প্রার্থীকে ভোট দেয়া যায়। কিন্তু বিতর্কের বিষয় হল, এটি হ্যাক করে ফল জালিয়াতির আশঙ্কা রয়েছে। তাই বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন থাকা সময়ের মধ্যেই মেশিনগুলোতে ফল জালিয়াতির অভিযোগ নতুন বিতর্কের জন্ম দেয়ার আশঙ্কায় ইতোমধ্যেই তদন্ত শুরু হয়েছে এবং ভুপালের একটি সুরক্ষিত কক্ষে মেশিনগুলো কেন দুই দিন পর্যন্ত জমা না দিয়ে মজুদ রাখা হয়েছিল তাও ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে কমিশন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, মধ্যপ্রদেশের নির্বাচনে কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ও প্রধান বিরোধী দল ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কংগ্রেসের মধ্যে। ভোটের শুরু থেকেই ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ করা হচ্ছিল। ইতোমধ্যেই কমিশনের সাথে বৈঠকে ভোট গ্রহণ শেষে ইভিএম মেশিনগুলো রাখার স্থানের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগও জানিয়েছে কংগ্রেস।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ