প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আরএফএল নিবেদিত পাওয়ার্ড বাই রিগাল ট্যাগলাইনে জান্নাত

আবু সুফিয়ান রতন : দিন দিন বাংলাদেশে বাংলায় ডাবিং করা বিদেশি ধারাবাহিক প্রচারের চল জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। বিশেষ করে তুরস্কের দারুণ সব ধারাবাহিক খুব সহজেই জয় করে নিচ্ছে টিভির দর্শকের মন।

সেই ধারাবাহিকতায় এটিএন বাংলা প্রচার করছে ‘জান্নাত’। এর পুরো ডাবিং প্রক্রিয়ার তত্ত্বাবধান করছেন ‘সুলতান সুলেমান’ খ্যাত দীপক সুমন। আর পরিবেশনা করছে ‘ভি থ্রী কমিউনিকেশন্স প্রাইভেট লিমিটেড’।

গেল ১৪ অক্টোবর থেকে প্রতি সপ্তাহের রবি থেকে বৃহস্পতি রাত ৯টা ২০ মিনিটে প্রচার হচ্ছে এটি। এরই মধ্যে দর্শকপ্রিয়তায় উঠে এসেছে ‘জান্নাত’র নাম।

নতুন খবর হলো, এই সিরিয়ালের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে দেশের জনপ্রিয় দুটি প্রতিষ্ঠান আরএফএল প্লাস্টিক ও রিগ্যাল ফার্নিচার। ‘জান্নাত’ এখন প্রচার হবে আরএফএল প্লাস্টিক নিবেদিত পাওয়ার্ড বাই রিগাল ফার্নিচার ট্যাগলাইনে।

শনিবার (১ ডিসেম্বর) রাজধানীর এক রেস্তোরাঁয় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেয়া হয়। পাশাপাশি জানানো হয়, সিরিয়ালটি শিগগিরই প্রকাশ হবে অনলাইনেও। জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল বঙ্গবিডিতে দেখা যাবে এই ধারাবাহিকটি। টিভি সম্প্রচারের মতো এর অনলাইন সম্প্রচারেও থাকবে আরএফএল প্লাস্টিক ও রিগাল ফার্নিচার।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আরএফএল প্লাস্টিকের বিপণন প্রধান এস এম আরাফাতুর রহমান, রিগ্যাল ফার্নিচারের বিপণন প্রধান দেবাশীষ সরকার, ভিথ্রির সিইও মুশফিকুর রহমান মঞ্জুসহ এটিএন বাংলার কর্মকর্তাগণ ও ‘জান্নাত’র ডাবিং শিল্পীরা।

২০১৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তুর্কি ডেইলি সোপ ‘জান্নাত’-এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘সুরেজ ফিল্ম’। পরিচালনা করেছেন সাদুল্লাহ জেলেন। প্রচারিত হয়েছে তুরস্কের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় চ্যানেল ‘এটিভি’-তে।

তুর্কি ডেইলি সোপটি মূলত নির্মাণ করা হয় তুমুল জনপ্রিয় কোরিয়ান ডেইলি সোপ ‘টিয়ার্স অব হ্যাভেন’-এর কাহিনি অবলম্বনে। কোরিয়ান ডেইলি সোপটি পরিচালনা করেন য়ু জি-ওয়োন। কাহিনি রচনা করেন কিম ইয়োন-শিন।

সিরিয়াল ‘জান্নাত’র গল্প যেমন নিখাদ পারিবারিক আমেজের, তেমনি এটি বর্তমান সময়েরও গল্প। এর কাহিনি আবর্তিত হয়েছে এক এতিম মেয়ের জীবনসংগ্রামকে কেন্দ্র করে। দারিদ্র্যের মধ্যে বড় হওয়া মেয়েটি যখন আর্কিটেক্ট হয়ে তার স্বপ্নের ফার্মে চাকরি পায়, তখন ভাবে অবশেষে তার জীবনের দুঃখ-দুর্দশা দূর হতে শুরু করেছে, সাফল্য ধরা দিতে শুরু করেছে।

অথচ সেই চাকরি পাওয়ার ঘটনা থেকেই তার জীবনে নতুন করে জটিলতার সৃষ্টি হতে থাকে। তাকে ফেলে যাওয়া মা আবারও তার জীবনে ফিরে আসে। তবে মাতৃসুলভ ভালোবাসা নিয়ে নয়, বরং তার প্রতি তীব্র বিদ্বেষ নিয়েই তার জীবনে আবির্ভূত হয়।

অন্যদিকে তার জীবনে যে প্রেম আসে, সেখানেও তার প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে দাঁড়ায় তার মায়েরই মেয়ে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ