Skip to main content

বিএনপি থেকে খোকাকে মনোনয়ন দিতে দলীয় হাই কমান্ডকে হুমকি

টি. এম. মামুন, বগুড়া : বগুড়া-৫ (শেরপুর-ধুনট) আসনে বিএনপি থেকে জানে আলম খোকাকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দিতে হাইকমান্ডকে হুমকি দিয়েছেন স্থানীয় নেতারা। একই সঙ্গে মনোনয়ন না দিলে একযোগে পদত্যগের ঘোষণাও দেন তারা। খোকা সমর্থকদের দাবি, এ মুহূর্তে খোকাই এ আসনে বিএনপি’র জন্য উপযুক্ত প্রার্থী। খোকা ছাড়া আওয়ামীলীগ প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা হাবিবর রহমানের এর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা কঠিন হবে। তাছাড়া সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মো. সিরাজ প্রয়োজনের সময় বিএনপি এবং বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মারাত্মক ক্ষতি করেছেন। তাছাড়া এক এগারো প্রেক্ষাপটে দলের চেয়ারপার্সনের বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে দেশের মানুষের কাছে ঘৃনার পাত্র হয়ে যান, বনে যান সংস্কারপন্থী নেতা। এর আগে ২৮ নভেম্বর(বুধবার) দুপুরে শেরপুর উপজেলা বিএনপি’র কার্যালয়ের সামনে শেরপুর শহর বিএনপি’র সভাপতি বিএইচ এম কামরুজ্জামান রাফুর সভাপতিত্বে বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল, কৃষকদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও শ্রমিকদলের অধিকাংশ নেতাকর্মীরা সমাবেশ করে খোকার পক্ষে অবস্থান ঘোষণা করেন তারা। সমাবেশে বক্তব্যে অন্যান্য নেতাদের মতো শেরপুর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপি’র সহ-শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আরিফুর রহমান মিলন বলেন- বিগত ১০ বছর দলীয় কর্মকান্ড বাস্তবায়নসহ জেল-জুলুম নির্যাতন সহ্য করে কর্মীদের পাশে থেকেছেন জানে আলম খোকা। সে সময় গোলাম মোঃ সিরাজকে শেরপুর-ধুনটের মাঠে দেখা যায়নি। সুতরাং খোকাবে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেওয়া না হলে বিএনপিসহ অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের সকল নেতাকর্মীরা দল থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হবে। সমাবেশে আরিফুর রহমান মিলন ছাড়াও উপজেলা বিএনপি’র সদস্য সচিব পিয়ার হোসেন পিয়ার, শহর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম পান্না, ধুনট শহর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আকতার আলম সেলিম, ধুনট উপজেলা বিএনপি’র সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আপেল মাহমুদ, সীমাবাড়ী ইউনিয়ণ পরিষদ এর সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আফতাব হোসেন তালুকদার, ভবানীপুর ইউনিয়ণ পরিষদ এর সাবেক চেয়ারম্যান জি এম মোস্তফা, মির্জাপুর ইউনিয়ণ পরিষদ এর সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মোনায়েম উপজেলা যুবদল সভাপতি শফিকুল ইসলাম আরফান, সহ-সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুদ্দৌলা মামুন, উপজেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান মতি, শেরপুর শহর যুবদল সভাপতি শাহবুল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আশেক মাহমুদ রোমান, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাহিদুর রহমান ময়দান, সাধারন সম্পাদক এজিএস সেলিম, শহর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম লিটন, ছাত্রদল নেতা নূর-নবী হাসান পিটু, আইয়ুব আলী মন্ডল, ফরহাদ হোসেন, শাহিদুল ইসলাম, শফিউল আলম সবুজ, তরিকুল ইসলামসহ খোকা সমর্থনকারী বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। বিএনপি সমর্থিত চিন্তাবিদরা বলেন, জানে আলম খোকা মনোনয়ন পেয়ে বিগত সময়ের ভুলগুলো চিহ্নিত করতে পারলেই সংসদ সসদ্য নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। এদিকে, গোলাম মোঃ সিরাজ সমর্থকদের দাবি, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে গোলাম মোঃ সিরাজই হবেন বগুড়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য। প্রসঙ্গত, মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন ২৮ নভেম্বর (বুধবার) সহকারী রিটানিং অফিসারের কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দেন জাতীয় পার্টি নেতা সাবেক জেলা ও দায়রা জজ তাজ মোহাম্মদ, আওয়ামীলীগ থেকে মুক্তিযোদ্ধা হাবিবর রহমান, বিএনপি থেকে গোলাম মোঃ সিরাজ, জানে আলম খোকা এবং সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে শেরপুর শহর মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ও শিল্পপতি তাহমিনা জামান হিমিকা ও শেরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব দবিবর রহমান।

অন্যান্য সংবাদ