প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এক চেয়ারে দশ মশা

সালাহ্ উদ্দীন পল্লব

কি মামু? হন হন কইরা কই যান?

: আর কোথায়… বাসায় যাচ্ছি।

: তিয়াস লাগে� এক কাপ চা খাইয়া যান…।

: সময় নেই, কাল কথা হবে…।

: তাইলে এক্ষান ধুয়া ছাড়া কয়েল নিয়া যান, বাসায় দরকার আছে!

: সেকি! বাসা থেকে বলেছে নাকি? আচ্ছা, দাও।

: বসেন, চা বানাই…।

: তাড়াতাড়ি করো, আচ্ছা? কয়েলের জন্য তোমাকে কি বাসা থেকে ফোন করেছিলো?

: অধৈর্য্য হইতাছেন ক্যান! ঘর জুইড়া হাজার হাজার মশার খবর তো পুত্রিকায়ও চইল্যা আইছে।

: কি সব বলছো?

: হ মামু, তিনশ সিটে মুনোনয়ন দিছে তিন হাজার!

: এটার সাথে মশার কি সম্পর্ক? তুমি কি কোনোদিনই ভালো কথা বলতে পারবে না?

: আমি কতা কইলেই তো আম্নের কাছে চিরতার মতন লাগে! কতা বুজেন্না তো আবার প্যাচ করেন ক্যান?

: আচ্ছা ঠিক আছে, বুঝিয়ে দাও…।

: দ্যাশের ভালো যদি এত্ত মানুষ চায় তাইলে আমাগো অবস্থা এমুন ক্যান? তিন হাজার লুক দ্যাশ আর দ্যাশের মানুষের জইন্য কাম করার লাইগা উইঠা পইরা লাগছে, কান্না কইরা তিস্তা নদী ভইরা ফালাইতাছে। আর আমার গায়ে চুল্কাইতেছে! এই দ্যাশে যারাই তিনশ লুকের একজন হইছে হেগোই টেকা পয়সার আংগুল ফুইলা পিরামিড হইছে। মাঝখান দিয়া আমাগো গা চুল্কায়।

: তারমানে কি দাঁড়ালো!

: হেরা মশার মতন জায়গা বেজায়গায় কামড়াইয়া আমাগো রক্ত লইয়া যাইতেছে দিনের পরে দিন। আমরা পাব্লিক ধুপ ধুয়া দিয়াও কিছু করতে পারতাছি না। এই দ্যাশের টেকা তো আমাগো রক্তেরই সমান!

: শোন, যুক্তি দিয়ে কথা বলবে, এমন অযথা একটা ব্যাপারের সাথে আরেকটা মিলিয়ে ফেলো না। সাধারণ মানুষ ভোট দিয়ে ঠিক করবে জনপ্রতিনিধি।

: সেইটা তো শুধু এই দ্যাশের জইন্য না। কিন্তু এই দ্যাশে সাধারণ মানুষ পাইবেন কই? সবাই তো কুনো না কুনো দলের লুক! শুনেন না নেতারা কয়… জনগণ আমাগো লগে আছে! হেরাই আমাগো ভাগবাটোয়ারা কইরা রাখছে! হেরা জানে কার কার রক্ত কার কার! মানে কাগো টেকা কেম্নে খাইবো!

: কি যে সব বলোনা!

: আমি এম্নেই কই। অহন তো বিদেশি এক গ্রুপ কইছে আমাগো ইলাকশান লইয়া তাগো আগ্রহ নাই। কয়দিন পরে আরেক গ্রুপ কইবো কিসমাসের বন্ধ জইন্য আইতে পারুম না। পরে আরেক গ্রুপ কইবো ইংরাজি নিউ ইয়ার আছে, আইতে পারুম না!

: না না, এইসব গুজব ছড়াবে না একদম!

: হে হে হে হে! তাইলে কন… হেগো কি ঠেকা পরছে দ্যাশে আইসা তামাশা দেখোনের? যেই দ্যাশে অক্ষনো ব্যাংক চুরেরা, খেলাপিরা, শেয়ার চুরেরা, দাগী আসামি আর মেট্টিক পাসেরা আইন বানাইতে বসবে… তাগো নাটক দেখতে কেডা নিজের ছুটি বরবাদ করবো?

: এই জন্যই বলে অল্প বিদ্যা ভয়ংকর! তোমার জ্ঞ্যান বাড়াও।

: আমার জ্ঞ্যান নাই বইলাই অস্থির হই দ্যাশের কথা ভাইবা, আর আম্নেরা জ্ঞ্যানের দুধের ডিব্বা মাথায় লইয়াও বুঝেন না। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পার হওনের পরেও অখনো আম্নেরা বুঝেন না কারে ক্ষমতা দিলে কি হইবো! আম্নেগো স্কুল পাসের সার্টিফিকেট দিছে ক্যাডা! যান কয়েল নিয়া ফুটেন। ইচ্ছা হইলে জ্বালাইয়েন, নাইলে সাজাইয়া রাইখেন!

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ