প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলনায় মন্ত্রীর জামাতা গুলিবিদ্ধ

ডেস্ক রিপোর্ট : গুলিবিদ্ধ প্রভাষ কুমার দত্ত খুলনা মহানগরীর বকশিপাড়া এলাকায় নিজ বাড়িতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন মৎস্য ও প্রাণী সম্পদমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দের জামাতা ও বাংলাদেশ ব্যাংক খুলনার ডিজিএম প্রভাষ কুমার দত্ত (৫৬)। শুক্রবার (৩০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ৮/২ নং বকশিপাড়ার বাসভবনে এ ঘটনাটি ঘটে।

গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর তিনি বাথরুমে ঢুকে আত্মরক্ষা করেন। পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাকে রাতে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (রাত পৌনে ১টা) হাসপাতালে তার অস্ত্রোপচার চলছিল।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) এডিসি ও মিডিয়া উইং প্রধান সোনালী সেন এ ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রভাষ সন্ধ্যা ৭টায় বাসায় প্রবেশ করেন। এরপর রাত ৮টার দিকে বের হয়ে যান। পরে বাইরের কাজ শেষে ১০টার দিকে বাসায় ফেরেন। এরপর সাড়ে ১০টার দিকে গেটের কলিং বেল বেজে ওঠে। এ অবস্থায় প্রভাষ গেটটি খোলেন। তখন মুখোশধারীরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি করে।

সূত্রটি আরও জানায়, প্রভাষের বড় ছেলে ভারতের উড়িশ্যায় অবস্থান করছেন। আর মেয়ে থাকেন ঢাকায়।

সোনাডাঙ্গা মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বকশিপাড়া রোড এলাকায় বাংলাদেশ ব্যাংকের খুলনা শাখার ডিজিএম প্রভাষ কুমার দত্ত নিজ বাসার বেডরুমে ছিলেন। এ অবস্থায় মুখোশধারীরা প্রভাষকে লক্ষ্য করে গুলি করে। গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি বাথরুমে ঢুকে আত্মরক্ষা করেন। তার পেটের ডান পাশে গুলি লাগে। পরে তাকে আহত অবস্থায় খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।’

প্রভাষের বড় শ্যালক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র বলেন, ‘প্রভাষকে বকশিপাড়ার বাসভবনে গুলি করার ঘটনা ঘটেছে। তার কোনও শত্রু ছিল না। কেন এ ঘটনা ঘটল তা প্রভাষ সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত বলা কঠিন। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, খুলনা-৫ আসনে যেহেতু বাবা সংসদ সদস্য প্রার্থী। তাই তাকে নির্বাচনে ক্ষতিগ্রস্ত করতে মানসিক চাপে ফেলার লক্ষ্য নিয়ে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসী বাহিনী এ হামলা করে থাকতে পারে।’
সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ