প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শারমিনকে খুন করা হয় : নূরজাহান ঝর্ণা

রফিক আহমেদ : সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম- এর কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য নূরজাহান ঝর্ণা বলেছেন, বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শারমিনকে খুন করা হয়। এর আগে ৩ জুলাই শারমিনের মা মেয়ের নিরাপত্তা চেয়ে বখাটে সোহেলের বিরুদ্ধে জিডি করেছিল। কিন্তু পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি। শুক্রবার সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শারমিনের খুনি সোহেলের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম- এর নেতৃবৃন্দ সমাবেশে এ কথা বলেন।

নূরজাহান ঝর্ণা বলেন, গোপীবাগে দীর্ঘদিন ধরে শারমিনকে উত্যক্ত করতো বখাটে সোহেল। শারমিনের বাবা মারা গেছেন ৩ বছর আগে। মা ও ছোট ভাইসহ গোপীবাগে থাকতো। মা গৃহশ্রমিকের কাজ করে শারমিনকে লেখাপড়া করাচ্ছিলেন। শারমিন কাজী আরিফ স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। গত ২৭ নভেম্বর স্কুলের বিদায় অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফিরছিল শারমিন। সোহেল পিছন থেকে এসে দা দিয়ে শারমিনের ঘাড়ে কোপ দেয়। শারমিন সেখানেই মারা যায়।

তিনি বলেন, প্রত্যক্ষদর্শীরা খুনিকে ধরে ফেলে এবং থানায় সোপর্দ করে। সোহেলের আত্মীয়-স্বজন নিহতের আত্মীয়-স্বজন এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের নানাভাবে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। নিহত শারমিনের নামে নানা গুজব ছড়ানোর অপচেষ্টা করছে। এই অবস্থায় স্বামীহারা, কণ্যাহারা শারমিনের মা সালমা বেগম খুনির সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করছেন।

সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম এর কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য নূরজাহান ঝর্ণার সভাপতিত্বে ও শম্পা বসুর পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শারমিনের মা সালমা বেগম, খালা নার্গিস বেগম, প্রত্যক্ষদর্শী সহপাঠী রিয়া এবং খালাতো ভাই ফয়সাল। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

সম্পাদনা- মাহবুব আলম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ