প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ, আটক ৩ মাদ্রাসাশিক্ষক

অনলাইন ডেস্ক : ফেনী শহরতলীর লালপোল এলাকায় হালিমা সাদিয়া মহিলা মাদ্রাসায় জহিরুল ইসলাম শাকিব (১৫) নামে এক ছাত্রের আকস্মিক মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষকের নির্যাতনে তার মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

হত্যার অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক মাওলানা করিমকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতাল থেকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ছাত্র জহিরের মামা শামছুল আলম জানান, জহিরকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যাওয়ার সময় শিক্ষক করিমকে তারা পুলিশে সোপর্দ করে।

নিহত মাদ্রাসা ছাত্র জহির শহরের পূর্ব উকিলপাড়া এলাকার আবদুল খালেক ভবনের আবদুল আউয়ালের ছেলে।

নিহতের মামা মিজানুর রহমান ও শামসুল আলম বলেন, এটি কোনভাবেই আত্মহত্যা নয়, এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। গত ১০ দিন আগে ছেলে সুস্থ্য অবস্থায় মাদ্রাসায় যায়, মরদেহের গায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সে প্রায় সময় অভিযোগ করতো শিক্ষকরা তাকে নির্যাতন করে এবং ঠিকমতো খাবার দেয় না।

ফেনী সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সাহাব উল্যাহ রিটু জানান, বিকেল সাড়ে ৪টায় মাদ্রাসা ছাত্র জহিরকে হাসপাতালে আনা হয়, সে সময় সে মৃত ছিল। তার গলায় ও কোমরে আঘাতের চিহ্ন আছে।

এদিকে শিক্ষক মাওলানা করিমের দাবি, ছাত্রটি জানালার সঙ্গে গামছা প্যাঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, পুলিশ প্রাথমিকভাবে সুরতহাল করেছে। ময়না তদন্তের পরে জানা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত