Skip to main content

বরগুনায় স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

শাহ্ আলী, বরগুনা : বরগুনা সদর উপজেলার ঢলুয়া ইউনিয়নের নলী গ্রামে বসত ঘর থেকে বৃদ্ধ স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা হচ্ছেন, আবদুল মন্নান (৭৫) ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৬৫)। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বরগুনা থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন জানিয়েছেন, বৃদ্ধ আবদুল মন্নান দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। প্যারালাইজ হয়ে বিছানায় পড়ে আছেন। তার ২ ছেলে থেকেও নেই। ছেলেরা অনেক আগেই বাবার সম্পত্তি লিখে নিয়েছেন। এরপর থেকে বাবা-মায়ের ভরন-পোষন দিতনা। বর্তমানে মায়ের ৪৪ শতাংশ জমি লিখে নেবার জন্য ছেলেরা পায়তারা করে আসছিলো। জমি লিখে না দেয়ায় বড় ছেলে নজরুল ইসলাম ননী ও তার স্ত্রী বিথী একাধিকবার বৃদ্ধ বাবা-মাকে মারধর করেছেন। এলাকাবাসী এনিয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠক করেছেন। ছোট ছেলে জহিরুল ইসলাম বরগুনা শহরে বসবাস করেন। বৃহস্পতিবার রাতে বসত ঘরের বারান্দায় একত্রে ঘুমিয়ে ছিলেন, আবদুল মন্নান ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম। পাশের ঘরে ছিলেন, তার বড় ছেলে নজরুল ইসলাম ননীসহ পরিবারের সদস্যরা। ধারনা করা হচ্ছে, গভীর রাতে স্বামী-স্ত্রীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান হোসেন জানিয়েছেন, মরদেহ উদ্ধারের পাশাপাশি ২ ছেলেসহ পরিবারের সদস্যদের নজরদারীতে রাখা হয়েছে। তাদের ধারনা অল্প সময়ের মধ্যেই হত্যা রহস্য উদঘটিত হবে।

অন্যান্য সংবাদ