প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঐক্যফ্রন্ট ক্ষমতায় গেলে প্রধানমন্ত্রী হবেন তারেক রহমান : এ আরাফাত

উল্লাস মূর্তজা : সুচিন্তা ফাউণ্ডেশনের চেয়াম্যান মোহাম্মদ এ আরাফাত বলেছেন, ক্ষমতায় গেলে প্রধানমন্ত্রী কে হবেন, এ প্রশ্নের উত্তর ঐক্যফ্রন্ট থেকে কখনও দেওয়া হয়নি। তবে আমরা ধারণা করে নিতেই পারি, তারেক রহমানকেই তারা প্রধানমন্ত্রী করবে। জামায়াতকে ২৫টি আসন দিয়েছে সেখানে ১/২টাকে অবশ্যই মন্ত্রী করা হবে। বৃহস্পতিবার ‘নাগরিক টিভি’র টকশোতে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ঐক্যফ্রন্টের নেতারা এখন মুজিব কোট পরে জয় বাংলা বলার চেষ্টা করছে। তারা জয় বাংলা শ্লোগান ঝেড়ে ফেলতে পারেনি। ধানের শীষ এবং জামায়াতের সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করার উত্তর তারা জাতির কাছে কীভাবে দিবে? বাংলাদেশের মানুষ জানে ১৯৭৫-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের নেতৃত্বকে শেষ করে, জবাই করা হয়েছে। তারা আস্তে আস্তে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছে, তারা দেখেছে তাদের পাশে জামায়াত, বিএনপি হাঁটছে। ৭২-৭৫ পর্যন্ততো এরা ছিলো না। ।
এ আরাফাত বলেন, ‘বামপন্থীরা বলেন, একদিকে রাজাকার অপরদিকে স্বৈরাচার ।

হিসাব করলে দেখা যায়, একদিকে যদি স্বৈরাচার হয় অপরদিকে রাজাকার আর স্বৈরাচার। এরশাদ যেভাবে ক্ষমতায় আসলো সে স্বৈরাচার হয়ে গেলো। জিয়াউর রহমান একইভাবে ক্ষমতায় এসে হয়ে গেলো বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাতা। জাতীয় পার্টি, জামায়াত, বিএনপি একসাথে থাকলে আওয়ামী লীগ কখনও ক্ষমতায় আসতে পারতো না। তাই তাদেরকে কৌশলের মাধ্যমে আলাদা করেছে।’

বিএনপি এবং জামায়াতের রাজনীতিতে তারা যুদ্ধাপরাধীকে প্রশ্রয় দেয় , জঙ্গীবাদকে সহযোগিতা করে। আর বামধারার রাজনীতি তারা নির্দিষ্ট একটা আদর্শের ওপরে দাঁড়িয়ে। আওয়ামী লীগ হলো ২টার মিশ্রণ । তারা আদর্শের জায়গায়ও ঠিক আছে, বাস্তবতার ভিত্তিতে তারা বিভিন্ন রকম কৌশল অবলম্বন করে। আদর্শিক দিক থেকে বিএনপি ও জাতীয় পার্টির মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। মুলত জামায়াতকে পুণর্বাসিত করেছে বিএনপি ও জাতীয় পার্টি। এ দল ২টির উৎপত্তি এবং বেড়ে ওঠা একই সময়ে, একইভাবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ হেফাজত ইসলামকে সাথে নেয়নি তবে আওয়ামী লীগ একটা গুরুত্বপূর্ণ কাজ করেছে, কওমী মাদ্রাসাভিত্তিক জনগোষ্ঠী ১৫ লাখেরও বেশী। তাদেরকে মূলধারায় নিয়ে এসেছে। কিন্তু বিএনপি এদেরকে ব্যবহার করেছিলো।
আপাত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, ঐক্যফ্রন্ট একটু নির্ভার আসলে কিন্তু তা নয়। যখন তারা নির্বচনী প্রক্রিয়ায় ঢুকে গেছে তারপর আর নির্ভার হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। বিএনপি, জামায়াত, ঐক্যফ্রন্ট দলগুলো মিলে একটা বোলের মধ্যে সালাদ হয়ে গেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত