প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তৃণমূল আওয়ামী লীগে ঐক্যের সুর!
মনোনয়ন যুদ্ধ শেষ, ব্যক্তিকে নয়-দলকে জেতাতে মাঠে নামছেন সবাই

আসাদুজ্জামান সম্রাট : দলের মনোনয়ন নিয়ে তৃণমূলে আওয়ামী লীগে বিভেদ তৈরি হলেও নির্বাচন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে এ বিভেদ কমে যাচ্ছে। দলের মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করতে একে একে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে সকল মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতারা। ব্যক্তি নয়, দলকে জেতানোর জন্য আহ্বান জানাচ্ছেন সকলেই।

ঢাকা-১৩ আসনে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে সবচেয়ে বেশি অনৈক্যের সৃষ্টি হয়েছিল আওয়ামী লীগে। এর জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা এমনকি সংঘর্ষের জের ধরে ২ জনের মৃত্যুও হয়েছে। কিন্তু দলের কর্মী সভায় মনোনয়ন না পাওয়া যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক দলের মনোনীত প্রার্থী সাদেক খানকে জেতাতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন। তাঁর অনুসারী দলের নেতা-কর্মীকে আবেগঘন আহ্বান জানিয়েছেন, শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে নৌকাকে বিজয়ী করার জন্য।

ঢাকা-১৪ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন সংরক্ষিত নারী আসনের সাবিনা আক্তার তুহিন। তিনি মনোনয়ন বঞ্চিত হলেও তাঁর অনুসারী সবাইকে নিয়ে নৌকার জয় ছিনিয়ে আসতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন। ২৯ ডিসেম্বর নিজের ভেরিফাইড ফেজবুক পেইজে দলীয় নেতা-কর্মীদের ফুলের তোড়া নিয়ে মনোনীত প্রার্থীর সঙ্গে দেখা করতে তার অনুমতির প্রয়োজন নেই। আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আসলামুল হককে জেতাতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

মনোনয়ন নিয়ে যুদ্ধাংদেহী অবস্থা ছিল পিরোজপুর-১ আসনে। বর্তমান সংসদ সদস্য এমএ আউয়াল মনোনয়ন বঞ্চিত হন এ আসন থেকে। দলের আইন বিষয়ক সম্পাদক শ ম রেজাউল করিম মনোনয়ন পেলেও মনোনয়ন প্রত্যাশী পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক, সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শাহ আলম, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসহাক আলী খান পান্নাসহ সকলেই নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে মাঠে নেমেছেন।

ফরিদপুর-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হলেও ওই আসনের মনোনয়ন পাওয়া সাবেক সচিব মঞ্জুর হোসেন বুলবুলকে জেতাতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন অন্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। মনোনয়ন প্রত্যাশী কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আরিফুর রহমান তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই তিনি মনোনীত প্রার্থীর সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। শিগগিরই তাকে জয়ী করার জন্য মাঠে নামবেন। তার অনুসারী নেতা-কর্মীদেরও মাঠে নামার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ময়মনসিংহ-৩ আসনের ১৬ মনোনয়ন প্রত্যাশীর মধ্যে মনোনয়ন পেয়েছেন প্রবীণ নেতা নাজিম উদ্দিন। তাঁকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন অপর মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। মনোনয়ন প্রত্যাশী যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য আবু কাউসার চৌধুরী রন্টি জানিয়েছেন, নাজিম উদ্দিনকে বিজয়ী করতে তারা মাঠ পর্যায়ে কাজ শুরু করেছেন। মনোনয়ন প্রত্যাশী অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি নাজিম উদ্দিনকে ফোন করে তার জন্য মাঠে নামার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

এভাবেই একে একে বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতা এবং তাদের অনুসারী কর্মীরা দলের মনোনীত প্রার্থীকে জেতাতে মাঠে নেমেছেন। বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য তালুকদার মো. ইউনূস দলীয় মনোনয়ন না পেলেও ওই এলাকার মনোনীত প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা শাহে আলমকে জয়ী করতে মাঠে নেমেছেন। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ একটি বড়ো দল। সবাইকেই সুযোগ দিতে হয়। আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার প্রার্থীকে জয়ী করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ