Skip to main content

২০২০ সালেই ১০০ বলের টুর্নামেন্ট চালু করবে ইসিবি

স্পোর্টস ডেস্ক : সময়ের প্রয়োজনে পরিবর্তন এসেছে ক্রিকেটের দৈর্ঘ্য।ে পাঁচদিনের টেস্ট, একদিনের ওয়ানডে, এরপর টি-টোয়েন্টি। তাতেও যেন ক্রিকেটে ঠিক মতো রঙ আসছে না। যার ফলে আরো সংক্ষিপ্ত ভার্সনের ক্রিকেট হিসেবে অনেক জায়গায় মাঠে গড়িয়েছে ১০০ বলের ক্রিকেট ফরম্যাট। নতুন এই ফরম্যাট পুরোপুরিভাবে মাঠে গড়ানোর আগে বেশ কয়েকটি ট্রায়াল ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। তারা জানিয়েছে ২০২০ সাল থেকে তারা ১০০ বলের ক্রিকেট পুরোপুরি চালু করবে। ইসিবির বোর্ড সভায় ক্রিকেট কমিটির সুপারিশকৃত পরিবর্তিত নিয়মে অনুমোদন দেওয়া হয়। সেখানে বলা হয়েছে ২০২০ সাল থেকে ১০০ বলের ক্রিকেটের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হবে। এক বিবৃতিতে ইসিবি এ বিষয়ে জানায়, ‘ক্রিকেট কমিটির সুপারিশকৃত ক্রিকেটের নতুন প্রতিযোগিতার (১০০ বলের ক্রিকেট) নিয়মাবলীতে অনুমোদন দিয়েছে বোর্ড। এই প্রতিযোগিতার প্রতিটি ইনিংস হবে ১০০ বলের। যেখানে প্রত্যেক ১০ বল পর পর ওভার পরিবর্তিত হবে। একজন বোলার টানা ৫ কিংবা ১০ বল করতে পারবেন। আর সব মিলিয়ে সর্বোচ্চ ২০ বল করার সুযোগ পাবেন একজন বোলার।’ পেশাদার ক্রিকেটারদের অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান নির্বাহী ডেভিড লেদারডেল জানান, আমরা সকল ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। ইসিবির সঙ্গেও কথা বলেছি। এই টুর্নামেন্ট পেশাদার সকল নারী ও পুরুষ ক্রিকেটারদের সুযোগ-সুবিধা বাড়াবে। একটা ভালো পারিশ্রমিকে ক্রিকেটাররা খেলতে পারবে। তবে, চ্যালেঞ্জ না নিলে এই টুর্নামেন্ট আলোর মুখ দেখবে না। জানা যায়, আট দল নিয়ে ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড ১০০ বলের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট চালু করতে চাইছে। দর্শক আকর্ষণ বাড়াতেই তাদের এই চিন্তা-ভাবনা। যা সাধারণ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের থেকেও ২০ বল কম। ১০০ বলের ম্যাচ হলেও ক্রিকেট ঐতিহ্য ভাঙতে চায়নি আয়োজকরা। এর আগে এ বছরের এপ্রিলে নতুন ফরম্যাটের ক্রিকেট ম্যাচ আনার প্রস্তাব দিয়েছিল ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড। তবে এ ফরম্যাট নিয়ে শুরুতে বিতর্ক শুরু হলেও, পরে বলা হয়েছে মূলত দর্শক আকর্ষণ বাড়াতেই এমন প্রস্তাব দিয়েছিল তারা। ইতোমধ্যে নাকি এই টুর্নামেন্টের জন্য ভেন্যুও ঠিক করে ফেলেছে আয়োজকরা। খেলা হবে সাউদাম্পটন, বার্মিংহাম, লিডস, লন্ডন, ম্যানচেস্টার, কার্ডিফ এবং নটিংহ্যাম্পশায়ারে। পুরুষদের পাশাপাশি এই ১০০ বলের নতুন ফরম্যাটে নারীদের লিগও চালু হবে। আর তাতে ব্রডকাস্টার প্রতিষ্ঠান সহ ক্রিকেটাররাও নাকি বেশ আগ্রহী।