প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সরকারের ধারাবাহিকতা রক্ষার নামে সুষ্ঠু নির্বাচন হচ্ছে না : ডা. মনীষা চক্রবর্তী

বিভুরঞ্জন সরকার : নির্বাচন শুধু পাঁচ বছর পর পর কার কাছে ক্ষমতা যাবে সেটি নিশ্চিত করে। নির্বাচন কখনো গণতন্ত্র নিশ্চিত করে না। গণতান্ত্রিক রীতিনীতি নিয়মিত চর্চার মাধ্যমেই বিকশিত হয়। নির্বাচন গণতন্ত্রের একটি অন্যতম উপাদান। আমাদের নতুন সময়ের সাথে আলাপকালে এ কথা বলেছেন বাসদ নেত্রী ডা. মনীষা চক্রবর্তী।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আমরা বিজয় অর্জনের পর একটি গণতান্ত্রিক দেশ পাওয়ার আশা করেছিলাম। সেটা বারবার ব্যাহত হয়েছে। মানুষের ভোট দেওয়ার যে অধিকার সেটি অনেক আন্দোলন করেই আদায় করতে হয়েছে। আজকের বাংলাদেশে সরকারের ধারাবাহিকতা রক্ষার নামে আবারও যেনতেন নির্বাচন হচ্ছে। এটা কাম্য নয়। সুষ্ঠু নির্বাচন হলেও সরকারের ধারাবাহিকতা না থাকার কোনো কারণ দেখা যায় না, যদি মানুষ তাদেরই ভোট দেয়।

ডা. মনীষা বলেন, আমাদের দেশে কোনো কিছুর জবাবদিহিতা নেই। এটা এক ধরনের ডিক্টেটরের জন্ম দেয়। দেশে ক্ষমতাকে সব কিছুর উর্ধ্বে ধরা হয়। যেকোনো দেশে আইনের শাসন না হয়ে ক্ষমতার শাসন প্রতিষ্ঠিত হলে গণতন্ত্রের যে বোধ, গণতন্ত্রের ন্যূনতম যে চর্চা সেটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সারা পৃথিবীতে মানুষ বামপন্থার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেই এর জন্য সংগ্রাম করেছে এবং করছে। কিছু অপপ্রয়োগ বা ভুল-ভ্রান্তির উদহারণ দিয়ে আমি সমাজতন্ত্রকে হেয় করতে পারি না। কোনো উড়োজাহাজ ক্রাশ করলে আমরাতো অ্যারোডিমিক্সের সূত্রকে ভুল বলতে পারি না। সমাজতন্ত্র সর্বহারা মানুষের মতামতের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠিত হয়। যেসব দেশে বামরা নিজেদের শক্তিটা নিয়ে রাজনীতি করতে পেরেছে, তারা ঠিকই দাঁড়াতে পেরেছে উল্লেখ করে মনীষা বলেন, বাংলাদেশেও বামপন্থা শক্তিশালী হয়ে উঠবে।

প্রধানমন্ত্রী যে সংলাপটি শুরু করেছিলেন তখন একটি সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল উল্লেখ করে বাসদ নেত্রী বলেন, মানুষের মনের ভেতর একটি আশার জায়গা তৈরি হয়েছিলো যে, অনেক দিন পরে দেশে সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে এক টেবিলে বসে আলোচনার মাধ্যমে বরফ গলার লক্ষণ দেখা দিয়েছিলো। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আমরা কী দেখলাম? সংলাপের কোনো ফলাফল প্রকাশ হলো না। যাদের সাথে সংলাপে বসা হলো তাদের কোনো সুপারিশ মানা হলো না। একতরফা তফসিল ঘোষণা করে দেওয়া হলো। একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করার জন্য সরকারের খুব আগ্রহ আছে বলে এখন পর্যন্ত বোঝা যাচ্ছে না। একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য একদিকে সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে, পাশাপাশি নির্বাচনেও অংশগ্রহণ করতে হবে। এভাবেই দেশে গণতন্ত্রের ভিত মজবুত করা সম্ভব হবে বলে মনীষা চক্রবর্তী মনে করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ