প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আওয়ামী লীগে‘বিদ্রোহী’ প্রার্থীর ছড়াছড়ি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থীর ছড়াছড়ি। দলীয় টিকিট না পেয়ে বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ক্ষমতাসীন দলটির নেতারা। বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ সব মিলিয়ে শতাধিক নেতা বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেছেন। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিলকারী এসব নেতা বিদ্রোহী হিসেবে নিজেদের প্রকাশ করতে নারাজ। তারা নিজ-নিজ দলের নীতিনির্ধারকদের প্রার্থিতা পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছেন। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। এর আগে দল থেকে তাদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া না হলে পরবর্তী সময়ে কী সিদ্ধান্ত নিবেন তা পরে জানাবেন বলে ওই সব প্রার্থী জানিয়েছেন। বিদ্রোহী কয়েক নেতার সঙ্গে কথা বলে তাদের এমন মনোভাব জানা যায়।

দল থেকে যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন তাদের বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি আগে কথা বলেছেন। তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন দলের সিদ্ধান্তের

বাইরে গেলে তাদের দল থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে। তবে এখনই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। আশা করছি, দলের সিদ্ধান্তের বাইরে মনোনয়ন দাখিল করেছেন তারাও দল কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে নিজেই প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নিবেন।

বিদ্রোহী প্রার্থী : আওয়ামী লীগ ৭৯, বিএনপি ১৬, জাপা ১২

সারাদেশ থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর

ঢাকা বিভাগ

নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে আব্দুল্লা আল কায়সার (আওয়ামী লীগ); নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে কাউসার আহমেদ পলাশ (আওয়ামী লীগ) ও মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন (বিএনপি); নরসিংদী-৩ আসনে সিরাজুল ইসলাম মোল্লা (আওয়ামী লীগ) ও নরসিংদী-২ আলতামাস কবির মিশু (আওয়ামী লীগ); শরীয়তপুর-২ আসনে মানিক হাওলাদার (বিএনপি); মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনে চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন (আওয়ামী লীগ); টাঙ্গাইল-৪ আসনে উপজেলা শুকুর মাহ্মুদ (বিএনপি); টাঙ্গাইল-৬ আসনে রবিউল আওয়াল লাভলু (বিএনপি) ও ব্যারিস্টার আশরাফুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ)।

চট্টগ্রাম বিভাগ

ফেনী-১ আসনে খায়রুল বাশার তপন ও শেখ আব্দুল্লাহ (আওয়ামী লীগ); ফেনী-৩ আসনে আবুল বাশার, ইসতিয়াক আহমেদ ও হাজী রহিম উল্যাহ (আওয়ামী লীগ); কুমিল্লা-২ আসনে অধ্যক্ষ আবদুল মজিদ (আওয়ামী লীগ); ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা (জাপা), মাঈন উদ্দিন মঈন (আওয়ামী লীগ), হাজী মো. সফিউল্লাহ মিয়া (আওয়ামী লীগ), মো. আনিছুর রহমান (আওয়ামী লীগ), অ্যাডভোকেট সৈয়দ তানভীর হোসেন কাউছার (আওয়ামী লীগ), মোহাম্মদ আশরাফ উদ্দিন মন্তু (আওয়ামী লীগ), মো. মোখলেছুর রহমান (আওয়ামী লীগ) ও মো. শাহজাহান আলম সাজু (আওয়ামী লীগ); ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে জামাল রানা (জাপা) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনে মো. সায়েদুল হক সাঈদ (বিএনপি); চট্টগ্রাম-২ আসনে এটিএম পেয়ারুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ) ও চট্টগ্রাম-৪ আসনে আবদুল্লা আল বাকের ভূঁইয়া (আওয়ামী লীগ)।

রাজশাহী বিভাগ

নওগাঁ-২ আসনে ড. ইঞ্জিনিয়ার আখতারুল আলম (আওয়ামী লীগ); নওগাঁ-৪ আসনে অ্যাডভোকেট আব্দুল বাকী ও আফজাল হোসেন (আওয়ামী লীগ) এবং নওগাঁ-৬ আসনে আনোয়ার হোসেন হেলাল (আওয়ামী লীগ); নড়াইল-১ আসনে লে. কমান্ডার ওমর আলী (আওয়ামী লীগ); বগুড়া-২ আসনে মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা ও আবুল কাশেম ফকির (আ.লীগ); বগুড়া-৩ আসনে আব্দুল মুহিত তালুকদার (বিএনপি); বগুড়া-৪ আসনে কামাল উদ্দিন কবিরাজ ও অধ্যাপক আহছানুল হক (আ.লীগ), আনিছুর রহমান (বিএনপি) এবং আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলম (জাপা); বগুড়া-৫ আসনে তাহরিনা জামান হিমিকা (আ.লীগ); বগুড়া-৭ আসনে ডা. মোস্তফা আলম নান্নু (আ.লীগ) ও সরকার বাদল (বিএনপি); রাজশাহী-৫ আসনে ওবায়দুর রহমান (আওয়ামী লীগ); চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনে অ্যাডভোকেট সৈয়দ শাহীন শওকত (বিএনপি); চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস ও খুরশিদ আলম বাচ্চু (আওয়ামী লীগ)।

খুলনা বিভাগ

মেহেরপুর-১ আসনে অ্যাডভোকেট মিয়াজান আলী, জয়নাল আবেদীন, প্রফেসর আব্দুল মান্নান, অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম ও হাবিবুর রহমান (আওয়ামী লীগ); মেহেরপুর-২ আসনে এমএ খালেক, আহমেদ আলী, মোখলেসুর রহমান মুকুল, নুরজাহান বেগম ও ওয়াসিম সাজ্জাদ লিখন (আওয়ামী লীগ) এবং কিতাব আলী (জাতীয় পার্টি); যশোর-২ আসনে অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম ও অ্যাডভোকেট এবিএম আহসানুল হক (আওয়ামী লীগ) ও যশোর-৫ আসনে কামরুল হাসান বারী (আওয়ামী লীগ); সাতক্ষীরা-১ আসনে ইঞ্জিনিয়ার মুজিবর রহমান, সরদার মুজিবর রহমান, বিএম নজরুল ইসলাম, শেখ নুরুল ইসলাম ও বিশ^জিত সাধু (আওয়ামী লীগ); কুষ্টিয়া-১ আসনে আ.কা.ম সরওয়ার জাহান বাদশা, রেজাউল হক চৌধুরী ও আফাজ উদ্দিন মোল্লা (আওয়ামী লীগ); কুষ্টিয়া-৩ আসনে জাকির হোসেন সরকার (বিএনপি); কুষ্টিয়া-৪ আসনে নুরুল ইসলাম আনছার প্রামাণিক (বিএনপি)।

বরিশাল বিভাগ

বরিশাল-২ আসনে একে ফায়জুল হক রাজু, ইঞ্জিনিয়ার ওসমান ফারুক মনির, এম মোয়াজ্জেম হোসেন ও সৈয়দা রুবিনা আক্তার (আওয়ামী লীগ); বরিশাল-৬ আসনে ইঞ্জিনিয়ার ওসমান হোসেন মনির ও মোহাম্মদ আলী তালুকদার (আওয়ামী লীগ)।

রংপুর বিভাগ

দিনাজপুর-২ আসনে ডা. মানবেন্দ্র রায় (আওয়ামী লীগ); নীলফামারী-১ আসনে আমিনুল হোসেন সরকার (আওয়ামী লীগ), নেনসী রহমান কবীর (বিএনপি), এ আহমেদ বাকের বিল্লাহ (বিএনপি); নীলফামারী-৩ আসনে অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা (আওয়ামী লীগ), আনসার আলী মিন্টু (আওয়ামী লীগ), আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর (আওয়ামী লীগ), মেজর (অব) রানা মোহাম্মদ সোহেল (জাপা) ও ডা. বাদশা আলমগীর (জাপা); নীলফামারী-৪ আসনে আখতার হোসেন বাদল (আওয়ামী লীগ), ইঞ্জিনিয়ার সেকেন্দার আলী (আওয়ামী লীগ), আমেনা কহিনূর (আওয়ামী লীগ) ও মো. আমিনুল ইসলাম সরকার (আওয়ামী লীগ); কুড়িগ্রাম-১ আসনে ওসমান গণি (আওয়ামী লীগ), একেএম মোস্তাফিজুর রহমান (জাপা); শামীমা রহমান (বিএনপি); কুড়িগ্রাম-২ আসনে আবু সুফিয়ান (আওয়ামী লীগ), আবু বকর সিদ্দিক (বিএনপি), চৌধুরী সফিকুল ইসলাম (জাপা)।

সিলেট বিভাগ

সুনামগঞ্জ-৩ আসনে রফিকুল ইসলাম খসরু (বিএনপি); সুনামগঞ্জ-৪ আসনে মতিউর রহমান (আওয়ামী লীগ), অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ (জাতীয় পার্টি), ইনান ইসমাম চৌধুরী (জাতীয় পার্টি), মোহাম্মদ কামরুজ্জামান (জাতীয় পার্টি); হবিগঞ্জ-১ আসনে বর্তমান সাংসদ এমএ মুনিম চৌধুরী বাবু (জাপা) ও আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী (আওয়ামী লীগ)।

ময়মনসিংহ বিভাগ

ময়মনসিংহ-৩ আসনে ডক্টর অধ্যক্ষ একেএম আব্দুর রফিক, ডা. মতিউর রহমান, আলী আহাম্মদ খান পাঠান, সেলভী নাজনীন, আলম শরীফ হাসান অনু, সামিউল আলম লিটন ও মুর্শেদুজ্জামান সেলিম (আওয়ামী লীগ); ময়মনসিংহ-৮ আসনে সৌমেন্দ্র কিশোর রায় চৌধুরী (আওয়ামী লীগ), মাহমুদ হাসান সুমন (আওয়ামী লীগ) ও রুহুল আমীন মাস্টার (বিএনপি); ময়মনসিংহ-৯ আসনে মেজর জেনারেল (অব) আব্দুস সালাম (আওয়ামী লীগ); ময়মনসিংহ-১০ আসনে ওবায়দুল্লাহ আনোয়ার বুলবুল (আওয়ামী লীগ) এবং ময়মনসিংহ-১১ ভালুকা আসনে অ্যাডভোকেট আশরাফুল হক (আওয়ামী লীগ); নেত্রকোনা-১ আসনে মোসতাক আহমেদ রুহী, মো. এরশাদুর রহমান ও কুতুব উদ্দিন রুয়েল (আওয়ামী লীগ); নেত্রকোনা-৪ আসনে শফী আহমেদ (আওয়ামী লীগ)।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ