প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জামায়াতকে ধানের শীষ: যা বললেন মির্জা ফখরুল

যুগান্তর : বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল বাংলাদেশ জামায়াতের নিবন্ধন আগেই বাতিল করা হয়েছে। ফলে দলগতভাবে এবং দলীয় প্রতীক ‘দাঁড়িপাল্লা’ নিয়ে নির্বাচন করতে পারছেন না দলটির প্রার্থীরা। ফলে জোটের প্রধান শরিক দল বিএনপির ‘ধানের শীষ’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনের মাঠে নেমেছে জামায়াত। অন্যদিকে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’-এর প্রধান শরিক দল বিএনপি। কিন্তু জামায়াত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে নেই। বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে এবং ২০ দলীয় জোটের প্রধান দল হিসেবে।

আর জামায়াত নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে ২০ দলীয় জোটের শরিক দল হিসেবে। তবে জামায়াতের নিবন্ধন না থাকায় দলটি ২০ দলীয় জোটের প্রধান শরিক দল বিএনপির ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছে। বিএনপির দলীয় প্রতীক ধানের শীষের প্রত্যয়নপত্র নিয়ে ২৫টি আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জামায়াত নেতারা। দলটির আরও ডজন খানেক প্রার্থী স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

জামায়াত নেতাদের ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করার বিষয়কে বিএনপি ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন। এ বিষয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিবিসি বাংলাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, তাদের দলীয় প্রতীক নেই বা সেটাকে স্বীকৃতি দেয়া হচ্ছে না, সেখানে ধানের শীষের প্রতীক তারা মেনে নিতে বাধ্য হচ্ছে। সেদিক থেকে অবশ্যই নেগেটিভ কিছু দেখছি না আমি।

তিনি বলেন, ঐক্যফ্রন্টের শরিকদের সাথে প্রাথমিকভাবে কথাও বলেছি, যতক্ষণ পর্যন্ত জামায়াত নাম না থাকবে কিংবা তাদের মার্কা না থাকবে, তাতে তারা খুব একটা আপত্তি করেনি। মির্জা ফখরুল বলেন, যে যুক্তিতে আমরা ঐক্যফ্রন্ট গঠন করেছি, সেই যুক্তিতেই বলছি, জামায়াতে ইসলামী যেহেতু নিবন্ধিত দল নয়, সুতরাং এ বিষয় নিয়ে খুব বেশি কথা বলার অবকাশ নেই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ