প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তৈরি পোশাকের উপযুক্ত মূল্য পেতে সহায়তা দেবে আইএএফ

স্বপ্না চক্রবর্তী : ইউরোপের বাজারে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের ব্রান্ডিং বাড়াতে কাজ করবে ইন্টারন্যাশনাল অ্যাপারেল ফেডারেশন (আইএএফ)। তৈরি পোশাকের উপযুক্ত মূল্য পেতেও কাজ করবে সংগঠনটি। জিএসপি প্লাসসহ যুক্তরাজ্যের বাজারে শূল্কমূক্ত সুবিধা আদায়ের বিষয়েও সোচ্চার থাকবে আন্তর্জাতিক এই সংগঠন।

বৃহস্পতিবার বিকালে রাজধানীর বিজিএমইএ ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান এসব তথ্য জানান। ইন্টারন্যাশনাল অ্যাপারেল ফেডারেশনের (আইএএফ) সঙ্গে বিজিএমইএ’র দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের বিষয় নিয়ে আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলনে বিজিএমইএ সভাপতি জানান, আর ২০২০ সালে আইএএফ কনভেনশন ঢাকায় অনুষ্ঠিত হওয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক সাড়া দেখিয়েছে পোশাক শিল্পের আন্তর্জাতিক এই ফেডারেশন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন দুইদিনের সফরে আসা আইএএফ সভাপতি হেন বেক ও সংগঠনের মহাসচিব মেথিস ক্রিটি।

এসময় বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হচ্ছে। ফলে জিএসপি প্লাস বিষয়টি আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া বেক্সিটের ফলে যুক্তরাজ্যের বাজারে শুল্ক মুক্ত সুবিধা রাখার বিষয়টিও গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ইউকে আমাদের তৃতীয় বৃহত্তম বাজার। এ বিষয়গুলো আইএএফ আমাদের তথ্য পরামর্শ ও অন্যান্য সহযোগিতা প্রদান করবে বলে আশ^াস দিয়েছে। ইউনিফাইড কোড অব কন্টাক আমাদের দীর্ঘ দিনের দাবি। এর মাধ্যমে সময় ও খরচ সাশ্রয়সহ শিল্পের কমপ্লায়েন্স নিশ্চিত করা সহজতর হবে। আইএএফ

ইতোমধ্যেই এ বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। ইউরোপে বাজারে আমাদের তৈরি পোশাকের ব্র্যান্ডিং করতেও সাহায্য করবে তারা।
বিজিএমইএ সভাপতি আরও বলেন, বিগত সাড়ে পাঁচ বছরে কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমাদের কারখানাগুলো ব্যাপক বিনিয়োগ করেছে। কিন্তু আমাদের পণ্যের মূল্য কমছে প্রতিবছর। রানা প্লাজার পর বাংলাদেশের ভাবমূর্তি যে সংকট তৈরি হয়েছে বিগত সাড়ে পাঁচ বছরে আমরা অনেক অগ্রগতি সাধন করার পরও তা পশ্চিমা মিডিয়াগুলোতে উঠে আসছে না। এই সুযোগে কিছু কিছু এনজিও আমাদের উপর চাপ সৃষ্টি করছে। এবং ভোক্তাদের বিভ্রান্ত করছে। আইএএফ সভাপতি আমাদের অগ্রগতির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন এবং তিনি মনে করেন শিল্পে আমাদের অগ্রগতি পশ্চিমা বিশে^ যথাযথভাবে প্রচার করা প্রয়োজন। এ লক্ষ্যে বিজিএমইএ ও আইএএফ এক সাথে কাজ করার বিষয়ে একমত হয়েছে।

আইএএফ সভাপতি হেন বেক জানান, ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত সংগঠনটির সদস্য রাষ্ট্র ৪৫ টি। তৈরি পোশাক শিল্পের সাপ্লাই চেইকে আরও স্মার্ট করতে কাজ করছে তাদের এই সংগঠন।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ এর প্রথম সহ-সভাপতি মঈনুদ্দিন আহমেদ মিন্টু এবং সহ-সভাপতি (অর্থ) মোহাম্মদ নাছির।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ