প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দেশে ১ কোটি ক্রনিক হেপাটাইটিস ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত ৪ কোটি

মোহাম্মদ রুবেল: দেশে ১ কোটি ক্রনিক হেপাটাইটিস এবং সাড়ে ৪ কোটি মানুষ ফ্যাটি লিভার রোগে আক্রান্ত। এ হিসেবে জনসংখ্যার এক-তৃতীয়াংশ অর্থাৎ প্রতি তিনজনে একজন কোনো না কোনোভাবে লিভার রোগে আক্রান্ত বলে জানিয়েছেন লিভার বিশেষজ্ঞরা। বৃহস্পতিবার (২৯ নভেম্বর) হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত পঞ্চম আন্তর্জাতিক লিভার সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

অধ্যাপক মবিন খান তার গবেষণায় তুলে ধরেছেন, লিভার-সংক্রান্ত সংক্রামক ব্যাধির প্রবণতা থেকে অসংক্রামক ব্যাধির উচ্চ প্রাদুর্ভাবে বিবর্তিত হচ্ছে বাংলাদেশ। বর্তমানে উভয় প্রকার লিভার রোগের প্রবতার মুখোমুখি হচ্ছে সাধারণ মানুষ। বিশেষকরে শহরে অঞ্চলের বাসিন্দারা হেপাটাইস ভাইরালে আক্রান্ত হচ্ছে। কর্মক্ষম মানুষই এ ভাইরাসে আক্রান্তের স্বীকার।

সম্মেলনের বৈজ্ঞানিক অধিবেশনে হেপাটাইটিস বি ভাইরাস নির্মুল, হেপাটাইটিস ‘সি’ ভাইরাস নিরাময়, ফ্যাটি লিভার প্রতিরোধ, শিশু ও গর্ভবতী মায়েদের লিভার রোগের চিকিৎসা সম্পর্কে শীর্ষস্থানীয় লিভার বিশেষজ্ঞরা আলোচনা করেন। হেপাটোলজি সোসাইটি বাংলাদেশ এ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সম্মেলনে অধ্যাপক মবিন খানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) এম এ মালিক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য বিশিষ্ট ভাইরোলজিস্ট অধ্যাপক মো. নজরুল ইসলাম, ডা. গোলাম মোস্তফা, ডা. গোলাম আজম, ডা. মোতাহার হোসেন প্রমূখ।

হেপাটোলজি সোসাইটি বাংলাদেশ-এর মহাসচিব ডা. মো: শাহিনুল আলম বলেন, বাংলাদেশে হেপাটাইটিস বি ভাইারাসে ৮৫ লাখ ও সি ভাইরাসে ১৫ লাখ মানুষ আক্রান্ত। এ ছাড়া সারা বছর হেপাটাইটিস ‘ই’ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব চলতে থাকে। চলতি বছরের এপ্রিল ও জুলাই মাসে চট্টগ্রামে হেপাটাইটিস ‘ই’ ভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করে। গণমাধ্যমের প্রশ্নের জবাবে হেপাটোলজি সোসাইটি বাংলাদেশ এর অধ্যাপক ডা. আবু সাইদ জানান, বাংলাদেশে লিভার বিশেজ্ঞ চিকিৎসকের খুবই অভাব। প্রতি বিশ লাখে একজন মাত্র লিভার বিশেজ্ঞ আছে। এ অবস্থায় লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট স্থাপন খুবই জটিল কাজ। অপর এক প্রশ্নের জবাবে ডা. মো: শাহিনুল আলম বলেন, দেশের প্রতিটি নগর ই ভাইরাসের আক্রান্তে। কিন্তু প্রযুক্তির অভাবে মোকাবেলা করা সম্ভব হচ্ছে না। লিভার রোগের এমন প্রবনতা মোকাবেলা করতে সরকারীভাবে অর্থের প্রয়োজন, ১০০০ লিভার বিশেজ্ঞ চিকিৎসক প্রয়োজন এবং একটি স্বতন্ত্র লিভার ইন্সটিটিউট প্রতিষ্ঠাকরা খুবই প্রয়োজন। সম্পাদনা: শাহীন চৌধুরী, হুমায়ুন কবির খোকন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ