প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঢাকা-৭ আসনের বিএনপি প্রার্থীকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

জাগো নিউজ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-৭ আসনের বিএনপির প্রাথমিক মনোনীত প্রার্থী মোশাররফ হোসেন খোকনকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তুলে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

বুধবার রাতে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, ঢাকা-৭ (লালবাগ) আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি এবং সাবেক কমিশনার মোশারেফ হোসেন খোকন আজ দুপুরে মনোনয়নপত্র দাখিল করে বাসার উদ্দেশে রওনা হওয়ার পর থেকে তার কোনো হদিস মিলছে না। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীই তাকে গ্রেফতার করেছে। আমি অবিলম্বে তাকে সুস্থ অবস্থায় পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, শরীয়তপুর-৩ (ভেদরগঞ্জ-গোসাইরহাট-ডামুড্যা) আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী বিএনপি নেতা মিয়া নুর উদ্দিন অপু নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিলের উদ্দেশ্যে ভেদরগঞ্জ উপজেলা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের দিকে রওনা হলে পথিমধ্যে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে অতর্কিত তাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। এমনকি মিয়া নুর উদ্দিন অপুকে কার্যালয়ে ঢুকতেও দেয়া হয়নি। সন্ত্রাসীরা নির্বিচারে বিএনপি নেতাকর্মীদের পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

এছাড়া অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিব নিয়ামত উল্লাহ ভূঁইয়াকে এক ঘণ্টা কথা বলার নাম করে গতকাল রাত ১০টায় র‌্যাব-২ অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাকে ফিরিয়ে দেয়া হয়নি। এ নিয়ে তার পরিবার-পরিজন ভীষণ উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় আছে।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পেশাদারিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলে রিজভী বলেন, গত দুইদিন ধরে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের শাহজাহানপুরের বাসা সার্বক্ষণিক ঘিরে রাখছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। গত কয়েকদিনে মির্জা আব্বাসের বাসা থেকে ১৯ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ