প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফোর্বসের প্রতিবেদন – টাকার খেলায় ধোনির উপরে বিরাট কোহলি

স্পাের্টস ডেস্ক : ভারতের বিজ্ঞাপনী জগতে একচ্ছত্র রাজত্ব চালাতেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। মাঠ ও মাঠের বাইরে দেশটির ক্রীড়াদুনিয়ার কার্যত সম্রাট ছিলেন তিনি। উপার্জনেও বাকি ক্রীড়াবিদদের কয়েক যোজন পিছনে ফেলেছেন এই ক্রিকেটার। তবে সাম্প্রতিক সময়ে খেলা ঘুরে গেছে। তবে দুনিয়া ও ভারতের ধনী ক্রীড়াবিদদের তালিকায় ধোনিকে পেরিয়ে গেলেন বিরাট কোহলি। ফোর্বসের সাম্প্রতিক প্রকাশ করা তালিকা তেমনটাই বলছে।

সম্প্রতি ফোর্বস দুনিয়ার ধনীতম ১০০ জন ক্রীড়াবিদের তালিকা প্রকাশ্যে এনেছে। সেই তালিকাতেই ৮৩ নম্বরে রয়েছেন কোহলি। নোভাক জকোভিচ, সের্জিও আগুয়েরোদেরও উপার্জনে পিছনে ফেলে দিয়েছেন তিনি। দুনিয়ার একমাত্র ক্রীড়াবিদ হিসেবে এই তালিকায় জায়গা পেয়েছেন কোহলি। ফোর্বস জানাচ্ছে, শেষ একবছরে কোহলি উপার্জন করেছেন ২৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

এই তালিকায় প্রথম তিনে রয়েছেন যথাক্রমে ফ্লয়েড মেওয়েদার (২৮৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার), লিওনেল মেসি (১০৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার) এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (১০৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার)।

মাঠের পারফরম্যান্স কোহলিকে ক্রিকেটের পোস্টার বয় বানিয়ে তুলেছে। বাইশ গজে ধারাবাহিকভাবে দুর্ধর্ষ সাফল্যের অংশ হিসেবে কোহলি এখন একাধিক বানিজ্যিক পণ্যের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর। জানা গেছে, বর্তমানে কোহলি ২১টি পণ্যের এনডোর্সমেন্ট করে থাকেন। এর মধ্যে রয়েছে ক্রীড়া প্রস্তুতকারক সামগ্রী, গাড়ি, পোশাক, হেলথ ফুড, হেডফোন, এমনকি টুথব্রাশও।

সবমিলিয়ে এখন কোহলির দাপট চলছে সর্বত্র। কয়েকবছর আগেও যেখানে শাসন করতেন স্বয়ং ধোনি। ক্যারিয়ারের সায়াহ্নে পৌঁছে গেছেন রাঁচির রাজপুত্র। তারই ফেলে আসা শূন্যস্থান দখল করেছেন কোহলি। তবে এত সবকিছু সত্ত্বেও ধোনিকে এখনও ছুঁতে পারেননি তিনি। ২০১৫ সালের ধোনি মোট উপার্জন করেছিলেন ৩১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। কোন ভারতীয় ক্রীড়াবিদের সেটাই ছিল সর্বোচ্চ উপার্জন। কোহলি সেই রেকর্ড এখনও স্পর্শ করতে পারেননি।