প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আখাউড়া ও আগরতলা ডুয়েলগেজ রেলপথ নির্মাণপ্রকল্পের দৃৃশ্যমান কাজ শুরু

রাশেদুল ইসলাম : আখাউড়া ও আগরতলা ডুয়েলগেজ রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের দৃৃশ্যমান কাজ শুরু হয়েছে। আখাউড়া অংশে ভারত সিমান্তবর্তী শিবনগর শূন্যরেখা হতে বাংলাদেশের গঙ্গাসাগর পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণের জন্য ইতোমধ্যে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ শুরু হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই রেলপথটি নির্মাণ হলে যাত্রীসেবার পাশাপাশি ব্যবসায়-বাণিজ্যে উভয় দেশ লাভবান হবে।

ভূমি অধিগ্রহণের জটিলতা কাটিয়ে আখাউড়া ও আগরতলা ডুয়েলগেজ রেলপথ নির্মাণ কাজ দৃশ্যমান হতে শুরু করেছে। ইতোমধ্যে ভারি যন্ত্রপাতির মাধ্যমে মাটি ভরাটের কাজ চলছে পুরোদমে। রেলযাত্রীরা বলছেন, প্রতিবেশী দেশ ভারতের সাথে এতদিন সড়ক এবং আকাশ পথে যোগাযোগ ছিলো। তবে এবার রেলপথ সংযুক্ত হওয়ায় বেশ খুশি তারা।

রেলযাত্রীরা আরও বলেন, যাত্রী হিসেবে অত্যন্ত উৎফুল্ল যে আমরা সহজেই ভারত এবং বাংলাদেশে যাতায়াত করতে পারবো। আমরা যারা রেলভ্রমণ করি, আমাদের জন্য এটি খুবই উপকার হবে।

যাত্রীদের পাশাপাশি বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা জানান, এ রেলপথ নির্মাণ হলে বাণিজ্য ভালো হবে এবং দেশের জন্য উন্নয়ন হবে। দুই দেশের সাথে আরো সুসম্পর্ক হবে। এই রেলপথ নির্মাণ হলে পূর্বাঞ্চলের প্রবেশ দ্বার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাথে ভারতের ৭টি অঙ্গ রাজ্যের ব্যবসায়-বাণিজ্যের ব্যাপক সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টি হবে।

প্রকল্প পরিচালক জানান, চলতি শুষ্ক মৌসুমেই অবকাঠামোগত নির্মাণ কাজ শেষ করা সম্ভব হবে। তিনি বলেন, শুষ্ক মৌসুমেই যদি পুরোবলে কাজটি আমরা করতে পারি , তবে আশা করি মূল যে কাজ সেটি শেষ করতে পারবো।

জেলা প্রশাসক জানান, রেলপথটি নির্মাণ হলে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য যোগাযোগ ও যাত্রী পরিবহণে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। এলাকাবাসী অত্যন্ত খুশি এ প্রকল্পের কাজটি দ্রুত গতিতে চলার কারণে।

বাংলাদেশ অংশে ১০ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪শ’ ৭৭ কোটি ৮১ লাখ টাকা । ভারতের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান টেক্সমেকো কাজটি বাস্তবায়ন করছে। ২০২০ সালের জুন মাসে নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। সূত্র : সময় টিভি