প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচন করবেন না ড. কামাল হোসেন

সাব্বির আহমেদ : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান ড. কামাল হোসেনের নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার বিষয়টি স্পষ্ট করেছেন ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষ নেতা অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। ঢাকা–৬ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে সুব্রত চৌধুরী বলেন, ড. কামাল হোসেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন না।

বুধবার দুপুরে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে নিজের মনোনয়ন ফরম জমা দেন সুব্রত চৌধুরী।

গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি বলেন, নির্বাচন নিয়ে আমরা দিন দিন হতাশার দিকে যাচ্ছি। ইসির আচরণে মনে হচ্ছে, তারা প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন করতে যাচ্ছে। তারা ৫ জানুয়ারির মতো আরেকটি নির্বাচনের মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিল। আমরা ঐক্যফ্রন্ট গঠনের মাধ্যমে নির্বাচনী জোয়ার তৈরি করেছি।

জামায়াত প্রসঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের নেতা সুব্রত চৌধুরী বলেন, তিনি জামায়াত দেখেন না। জামায়াত যাঁরা, তাঁরা আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন।

নির্বাচনকে সামনে রেখে কামাল হোসেনের নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে রাজনৈতিক মহলে বেশ গুঞ্জন চলছিল। এর আগে বিষয়টি পরিষ্কার করা হলেও খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ নিতে না পাবার পর বিষয়টি ফের সামনে চলে আসে।

উল্লেখ্য, ১৯৭০ সালে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে পূর্ব পাকিস্তান থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে জয়ী হয়েছিলেন ড. কামাল হোসেন। ১৯৭২ সালের ৮ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তিনি পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তি পান। একই বছর স্বাধীন বাংলাদেশের সংবিধান রচনা কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৭২ সালে আইনমন্ত্রী এবং ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ সালে নির্বাচনী ফল নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বের সঙ্গে ড. কামালের মতবিরোধ দেখা দেয়। ১৯৯৩ সালে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন এই আইনজীবী আওয়ামী লীগ ত্যাগ করে গণফোরাম প্রতিষ্ঠা করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ