প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হলফনামায় মিথ্যা তথ্য থাকলে ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান

রাইজিংবিডি : প্রার্থীদের দেওয়া হলফনামা নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হওয়ার পর তা পর্যালোচনা করে মিথ্যা তথ্য পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

এমনকি প্রার্থীদের এনবিআরসহ সরকারের অন্যান্য যেসব প্রতিষ্ঠানে  সম্পদ বিবরণী দাখিল করা হবে, সেগুলোও মিলিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
মঙ্গলবার দুপুরে দুদক কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, যারা নির্বাচনের নমিনেশন পেপার দাখিল করবেন, এই নমিনেশন পেপারের সাথে হলফনামা দিতে হয়। আমি যতটুকু জানি এসব ওয়েবসাইটে প্রকাশ হয়। তখন এটা পাবলিক ডকুমেন্ট। অসত্য তথ্য যদি কেউ দেয়, আপনি দেখতে পারবেন, আমিও দেখতে পাবো। তখন আমরা সেটা নেবো।

তিনি বলেন, ‘এরপর এগুলো বিভিন্ন যায়গা থেকে তথ্য নিয়ে মিলিয়ে দেখে যাচাই-বাছাই করবো। যদি দেখা যায় অসত্য তথ্য তাহলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ইসির কাছে পাঠিয়ে দেব৷ আমাদের যদি ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ থাকে আমরাও নেব।

হলফনামায় প্রার্থীদের ভুল তথ্য দেওয়া প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘একটা ইচ্ছাকৃত ভুল। আরেকটা অনিচ্ছাকৃত ভুল। অনিচ্ছাকৃত ভুল হলে সেটা তো মানতে হবে। অনিচ্ছাকৃত ভুল হলে কনসিডার করা হবে।’

ইকবাল মাহমুদ বলেন, মানুষ এখন দুর্নীতি বন্ধ চায়৷ দেশে দুর্নীতি আছে এটা সত্য। এখন যারা আমাদের জন প্রতিনিধি হবেন, তারা সৎ নিষ্ঠাবান হবেন এটাই প্রত্যাশা মানুষের। এর প্রথম ধাপ হচ্ছে সকল প্রার্থী সৎভাবে নিষ্ঠার সাথে তাদের সম্পদের হিসাব নির্বাচন কমিশনের আইন অনুযায়ী দাখিল করবেন। প্রার্থীরা সরকারের অন্য যে সকল প্রতিষ্ঠানে তাদের সম্পদ বিবরণী দাখিল করবে যেমন-এনবিআরে দাখিল করবেন ওইগুলোও আমরা মিলিয়ে দেখবো।

রাইজিংবিডি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত