প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাপের বিষসহ বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী নেতা গ্রেফতার

সুজন কৈরী : রাজধানীর মিরপুর থেকে সাপের বিষসহ পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী জাকারিয়া পিন্টুকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। পিন্টু পাবনা জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ও ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক। তার কাছ থেকে তথ্য নিয়ে সাপের বিষ পাচার সিন্ডিকেটের আরো ১০ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। র‌্যাবের দাবি, পিন্টু সাপের বিষ পাচারে আন্তর্জাতিক সিন্ডিকেটের সদস্য।

এর আগে সোমবার দুপুরের পর থেকে মিরপুরের মনিপুর এলাকায় জাকারিয়া পিন্টু নিখোঁজ হয়ে যায় বলে পরিবার দাবি করে। পরে মঙ্গলবার র‌্যাব থেকে জানানো হয়, জাকারিয়া পিন্টুকে সাপের বিষের ৬টি জারসহ গ্রেফতার করা হয়। উদ্ধার করা সাপের বিষের আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য আনুমানিক ৩ কোটি টাকা। পিন্টু ছাড়া গ্রেফতার অন্যরা হলেন- লিটন রহমান (৪০), আসাদ চৌধুরী (৪৭), ফিরোজ মাহমুদ (২৫), রনজিৎ সেন (৭২), কমলেশ মুখার্জী (৩০), সদর উদ্দিন (৬৩), মাহফুজ হক (২৯), আনিছ (২২), সৈয়দ হোসেন (৬৫) ও হামিম ওরফে শুভ্র (৩১)। তাদের কাছ থেকে একটি মাইক্রোবাস জব্দ করা হয়েছে।

জাকারিয়া পিন্টুর ছোট ভাই ঈশ্বরদী পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন জুয়েল বলেন, তার ভাই ঢাকার মিরপুরের মনিপুর এলাকায় পরিবার নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকেন। সোমবার দুপুর ২টার দিকে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ। তিনি আরো বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশ, র‌্যাব ও ডিবি অফিসে খোঁজ নিয়েও তথ্য পাওয়া যায়নি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি থেকে পাবনা-৪ আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন পিন্টু। নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়ে দলের মনোনয়ন বোর্ডে সাক্ষাৎকারও দিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে মিরপুর থানার ওসি দাদন ফকির বলেন, জাকারিয়া পিন্টুকে সাপের বিষসহ র‌্যাব গ্রেফতার করেছে। মঙ্গলবার র‌্যাব এ ব্যাপারে মিরপুর থানায় একটি মামলাও করেছে।

র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক এডিশনাল ডিআইজি কায়েমুজ্জামান বলেন, সোমবার মিরপুরের পশ্চিম মনিপুরের ২১১ নম্বরস্থ সুফিয়া ভিলার সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়। জাকারিয়া পিন্টু দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীতে সাপের বিষ পাচারের সঙ্গে জড়িত। তার কাছ থেকে ৬টি কাঁচের জার ভর্তি সাপের বিষ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে জারের মুখ বিশেষ কায়দায় আটকানো রয়েছে বলে খুলে ওজন মাপা সম্ভব হয়নি। এই বিষ বিদেশে পাচারের জন্য রাখা হয়েছিল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ