প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নতুন ঘর পেয়ে আবেগাল্পুত মুক্তিযোদ্ধা মহেন্দ্র নাথ

খোকন আহম্মেদ, বরিশাল : এত বড় পৃথিবীতে একটু নিশ্চিন্তে ঘুমানোর জায়গা এতোদিন ছিলনা। একটি ঘর পেয়ে আজ চিন্তা মুক্ত হলাম। নিজে হয়তো আর বেশীদিন বাঁচব না; তবে এখন মরে গেলেও প্রধানমন্ত্রীর বদৌলতে পাওয়া ঘরে নিজের অর্ধাঙ্গিনী বাকী জীবন নিশ্চিন্তে কাটাতে পারবে।

যার জমি আছে; ঘর নেই, এমন গৃহহীন পরিবারকে গৃহনির্মান করে দেয়া, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত একটি পাকা ঘর পেয়ে এভাবেই আবেআপ্লুত হয়ে কথাগুলো বলছিলেন, জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের টেমার গ্রামের বয়োবৃদ্ধ বীর মুক্তিযোদ্ধা মহেন্দ্র নাথ সরকার। প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল চন্দ্র দাসের তত্তাবধানে নির্মিত ৯১টি পরিবারের পাকা ঘর নির্মান কাজ মঙ্গলবার দুপুরে পরিদর্শনে গেলে তার সামনেই এসব কথা বলেন বঙ্গবন্ধুর বোনজামাতা ৭৫ এর ১৫ আগস্ট ঘাতকের বুলেটে শহীদ হওয়া আব্দুর রব সেরনিয়াবাতের নিরাপত্তা কর্মী বীর মুক্তিযোদ্ধা মহেন্দ্র নাথ সরকার।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল চন্দ্র দাস জানান, প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় আগৈলঝাড়া উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে ৯১টি গৃহহীন পরিবারকে বসবাসের জন্য একটি করে ঘর নির্মান কাজ চলমান রয়েছে। চৌচালা টিনের ঘর, বেড়া, ঢালাই খুঁটিসহ খোলা বারান্দার নতুন পাঁকা ঘর বাবদ বরাদ্দ রয়েছে এক লাখ টাকা। যা তিনি নিজেই সার্বক্ষনিক তদারকি করে বাস্তবায়ন করছেন।

নীতিমালা অনুযায়ি, যার এক থেকে দশ শতক জমি রয়েছে কিন্তু বসবাসের ঘর নেই এমন ব্যক্তি বা ঘর আছে কিন্তু বসবাসের অনুপযোগী এমন দরিদ্র ব্যক্তিরাই প্রধানমন্ত্রীর এই প্রকল্পের নতুন ঘর পাচ্ছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ