প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্যক্তিগত অডিও ক্লিপ ফাঁস করছে সরকারি গোয়েন্দা : পাপিয়া

মারুফুল আলম : বিএনপি’র সাবেক সাংসদ অ্যাডভোকেট আসিফা আশরাফী পাপিয়া বলেছেন, আমি অবাক হয়ে গেলাম। আমার দলের লোকের সঙ্গে আমি বসে আলাপ করতে পারি, টেলিফোনে আলাপ করতে পারি। এই অডিও কে ফাঁস করেছে? বর্তমান সরকারের গোয়েন্দা সংস্থা। এটার অবশ্যই বিচার দাবি করছি। রোববার সময় টিভির টক’শোতে ‘খন্দকার মোশাররফ হোসেন এবং ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ এর আলাপচারিতার অডিও ফাঁস’ নিয়ে আলোচনাকালে তিনি এ দাবি করেন।

তিনি বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে কেউ কোন কথা বললে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা হতে পারে, শিক্ষক ও সুশীল সমাজের সদস্য থেকে শুরু করে সুপ্রতিষ্ঠিত মানুষের বিরুদ্ধে সরকার একটার পর একটা মামলা করেছে তথ্য প্রযুক্তি আইনে। সরকার র‌্যাবকে দিয়ে, গোয়েন্দা সংস্থা দিয়ে অপপ্রচারগুলো করছে, গবেষণা করছে, ধরার চেষ্টা করছে। ক্ষমতায় থাকলে যে কলাকৌশলগুলো ব্যবহারের সুযোগ থাকে, ক্ষমতায় না থেকে নির্বাচন করলে সে সুযোগ থাকে না। তাই আমরা সরকারের অধীনে নির্বাচনে যেতে চাইনি। আজকেই সরকারের কাছে দাবি, এই অডিও ক্লিপটি কোথা থেকে কিভাবে আসলো বের করে তার বিচার করতে হবে।

এই বিষয়ে মামলা করবেন কি না জানতে চাইলে পাপিয়া বলেন, মামলা করবে কি করবে না সেটা নীতি-নির্ধারকরা বলবে, আমি সামান্য একজন মানুষ হিসেবে সংক্ষুব্ধ এবং এটার অবশ্যই বিচার দাবি করছি। আমাদের কথা বলার স্বাধীনতা আর নিরাপত্তা নাই আর সরকার ইচ্ছা করে আমাদের তথ্যগুলো ফাঁস করবে কিন্তু উনাদেরগুলো কেউ ফাঁস করলে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা হবে আর জেলখানায় যাবে, এটাতো হয় না।

আসন-ভাগাভাগি প্রসঙ্গে পাপিয়া বলেন, আমি নমিনেশন পেলাম কি পেলাম না, সেটা নিয়ে ভাবি না। দেশের এ অবস্থায় আমার যোগ্যতা যাচাই বাছাই করে স্বীকৃতির চেয়ে দেশকে এই বন্দিদশা থেকে মুক্ত করে মানুষের হাতে মানুষের গণতন্ত্র ফেরৎ দেয়া সবচেয়ে বড় বিষয়। আর এটাই যদি লক্ষ্য হয়, তাহলে আসন-ভাগাভাগি আমাদের ভেতরে ফাটল ধরাতে পারবে না।

ফোনালাপে “লোকজন জড়ো করে বিএনপি, আর তারা সেখানে বক্তব্য রাখছেন” প্রসঙ্গটি সামনে রেখে ঐক্যজোট নেতাদের সঙ্গে টানাপোড়েন সৃষ্টি হবে কি না জানতে চাইলে পাপিয়া বলেন, উনারা নিজেরাও জানেন যে, বিএনপির কর্মী-সমর্থক ও বিএনপির এরেঞ্জমেন্টে ওনারা বক্তব্য রাখছেন। তাছাড়া বড় সংগঠন, জাতীয় ঐক্য, বিভিন্ন পথের, বিভিন্ন দর্শনের ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে যেহেতু ব্যাপারটা, স্বাভাবিক কারণে কথোপকথন হতেই পারে। তাই এ বিষয় নিয়ে টানাপোড়েন হবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ