Skip to main content

দেশে ৩০ হাজার অবৈধ অস্ত্রের চাহিদা বাস্তবসম্মত নয় : ব্রিগে. জে. (অব.) এম সাখাওয়াত হোসেন

স্মৃতি খানম : বাংলাদেশে ত্রিশ হাজার অবৈধ অস্ত্রের চাহিদা রয়েছে তা বাস্তব বলে মনে করি না। ত্রিশ হাজার অস্ত্রের চাহিদা রয়েছে, যে বা যারা বলেছেন, কীভাবে ধারণা করেছেন, আমি জানি না। ত্রিশ হাজার অস্ত্র ছোট খাটো কোনো ব্যাপার নয় । বাংলাদেশে এ পর্যন্ত যে দশটি নির্বাচন হয়েছে, এই নির্বাচনগুলোর মধ্যে ২০১৪ সালে সন্ত্রাসী কর্মকা- বেশি হয়েছে । সেখানেও কিন্তু ক্ষুদ্র অস্ত্রের ব্যবহার তেমন একটি দেখা যাইনি । সেখানে পেট্রোলবোমা মারা হয়েছে, ককটেল মারা হয়েছে, এগুলো দেখা গেছে। যেগুলো ছিলো দেশের তৈরি। খুব সম্প্রতি একাত্তর জার্নালে সংযুক্ত হয়ে এমন মন্তব্য করেছেন নিরাপত্তা ও সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম সাখাওয়াত হোসেন। তিনি বলেন, অনেক সময় এমন হয়ে থাকে যে, বিভিন্ন মানুষ, বিভিন্ন দাবি-দাওয়া করে থাকে। কিন্তু আমাদের রয়েল ফোর্স এজেন্সি সারা বছর অস্ত্র উদ্ধার করেছে এবং উদ্ধার অভিযানের মধ্যেই ছিলো। কাজেই এখন স্পেশাল ড্রাইভ দিয়ে কেউ অস্ত্র উদ্ধার করে ফেলবে, এমনটি আমার মনে হয় না। ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এম সাখাওয়াত হোসেন বলেন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে যদি আলাদাভাবে ড্রাইভ দেয়া হয় নির্বাচনকালীন  সময়ে, বিশেষ করে যখন  মনোনয়ন দাখিল হবে, নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চলবে, এতে মানুষের হয়রানি বাড়বে। তবে আমার বিশ্লেষণে বা আমার দেখা মতে, কোনো নির্বাচনে এ রকম অস্ত্রের ব্যবহার হয়নি । তিনি বলেন, ত্রিশহাজার অস্ত্র দেশে আসা মানে, এক ধরনের গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা। আমি তা মোটেই চাইবো না যে, বাংলাদেশে এ ধরনের একটি আশঙ্কা তৈরি হোক। আমরা বিভিন্ন নির্বাচনে দেখেছি, নির্বাচনে রামদা ব্যবহার হয়ে থাকে, টোটা ব্যবহার হয়ে থাকে। এ গুলো দেশে তৈরি হয় এবং দেশীয় অস্ত্র ।  

অন্যান্য সংবাদ