প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোট দিন, মোটরসাইকেল জিতুন!

ডেস্ক রিপোর্ট : ভোটের আর বেশি দিন বাকি নেই। প্রার্থীরা ব্যস্ত প্রচারে। নির্বাচনী এলাকায় আনন্দঘন পরিবেশ। কিন্তু ভোটারেরা কেন্দ্রে ভোট দিতে যাবেন কি না, তা নিয়ে আছে সংশয়। নির্বাচন কমিশন চায় সব ভোটারের উপস্থিতি। আর তাই কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি বাড়াতে নেওয়া হয়েছে অভিনব উদ্যোগ। আর তা হলো ভোট দিয়ে মোটরসাইকেল জিতুন। পেতে পারেন স্কুটি বা মোবাইল ফোনও।

এসব উপহার পাওয়ার জন্য কোনো নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা দলের প্রার্থীকে ভোট দিতে হবে না। ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে যাঁকে খুশি তাঁকে ভোট দিলে পাওয়া যাবে উপহার।

‘ভোট দিন, মোটরসাইকেল জিতুন, পেতে পারেন স্কুটি কিংবা স্মার্ট ফোনও’—অভিনব এ উদ্যোগ নিয়েছে ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যর সিদ্দিপেট জেলা নির্বাচন কমিশন। জেলার চারটি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রতিটি বুথের ভোটাররাই পাবেন এসব উপহার জেতার সুযোগ। ভোটদাতাদের জন্য একটি ‘ড্র’ অনুষ্ঠিত হবে। এর বিজয়ীরা পাবেন এসব পুরস্কার। ভোটকেন্দ্রে সব ভোটারের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামী ৭ ডিসেম্বর চারটি বিধানসভায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে ২০১৪ সালে দেশটির পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়াতে ভোটারদের উপহার দেওয়া হয়েছিল।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, ভোটের দিন ভোট বুথের বাইরে রাখা হবে কুপন। ভোট দিয়ে বের হয়ে যাওয়ার সময় একটি করে কুপন দেওয়া হবে ভোটারদের। কুপনের একটি অংশ কেটে জমা রাখা হবে। অপর অংশ সংরক্ষণ করতে হবে ভোটারদের। ভোট শেষ হলে ‘ড্র’ হবে। পুরুষ ও নারী ভোটারদের জন্য থাকবে আলাদা কুপন। পুরুষদের মধ্যে একজন বিজয়ী পাবেন একটি মোটরসাইকেল। নারীদের মধ্যে একজন পাবেন একটি স্কুটি। এ ছাড়া নারী ও পুরুষের মধ্যে পাঁচজন করে ভোটার পাবেন স্মার্ট ফোন।

ফল ঘোষণা হবে ১১ ডিসেম্বর। এ চারটি বিধানসভায় মোট প্রার্থী ১ হাজার ৮২৪ জন। আর ভোটার ২ কোটি ৮০ লাখ ৬৪ হাজার ৬৮০ জন। নতুন ভোটার ৭ লাখ ৪৬ হাজার ৭৭ জন। সূত্র: প্রথম আলো