প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট আইনের অনুমোদন মন্ত্রিসভায়

আনিস তপন : বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) আইন, ২০১৮’র খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বেঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলণে মন্ত্রীপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের পরিচালনা পর্ষদের মেয়াদ কমিয়ে এ সংক্রান্ত আইনের অনুমোদন দেয়া হয়। অনুমোদিত আইনে পরিচালনা পর্ষদের মেয়াদ তিন বছর থেকে কমিয়ে দুই বছর করা হয়েছে। তিনি বলেন, আগে চলচ্চিত্রের সংজ্ঞায় বলা ছিল, সেলুলয়েড, এনালগ, ডিজিটাল বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে নির্মিত চলচ্চিত্র। এখন সেখানে এনালগ শব্দ বাদ দিয়ে নতুন সংজ্ঞায় চলচ্চিত্র অর্থ সেলুলয়েড, ডিজিটাল বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে নির্মিত চলচ্চিত্রকে বোঝাবে। সচিব বলেন, পরিচালনা পর্ষদে সরকার মনোনীত বিশিষ্ট সাংবাদিক শব্দ পরিবর্তন করে গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শব্দ সংযোজন করা হয়েছে।

মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, বর্তমান আইনে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের পরিচালনা পর্ষদে কমপক্ষে ৫ জন এবং সর্বোচ্চ ৭ জন বরেণ্য ব্যক্তিকে সরকার কর্তৃক মনোনীত করার কথা বলা হয়েছে। এখন সেটা পরিবর্তন করে সরকার কর্তৃক মনোনীত ইনস্টিটিউটের একজন শিক্ষক, একজন চলচ্চিত্র নির্মাতাসহ কমকক্ষে ৪ জন এবং সর্বোচ্চ ৬ জন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট বরেণ্য ব্যক্তির কথা বলা হয়েছে। ফলে এ ইনস্টিটিউটের শিক্ষক প্রতিনিধি নিশ্চিত হবে এবং এর সঙ্গে চলচ্চিত্র নির্মাতাদের সম্পৃক্ততা থাকবে। তাছাড়া সরকার মনোনীত বেসরকারি গণমাধ্যমের একজন প্রতিনিধির জায়গায় বেসরকারি শব্দটি বিলুপ্ত করে সরকার কর্তৃক মনোনীত গণমাধ্যমের একজন প্রতিনিধি করা হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত