প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‍‘রক্তের বিনিময়ে হলেও ভোটকেন্দ্র পাহারা দেবে বিএনপি’

রবিন আকরাম : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বানের (৩০শে ডিসেম্বর) দিন ভোটকেন্দ্র পাহারা দেবে বিএনপি। কেউ যাতে কেন্দ্র দখল ও কারচুপি করতে না পারে সেজন্য কেন্দ্রে অবস্থান নেবেন দলীয় নেতাকর্মীরা। তারা জানিয়েছেন, ভোটের দিন কোন ধরনের আঘাত এলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে, তা প্রতিহত করা হবে। তথ্য- ডিবিসি নিউজ

আন্দোলনের অংশ হিসেবেই আগামী নির্বাচনে যাচ্ছে বিএনপি- এমন ঘোষণার পরই নির্বাচনি আমেজ ছড়িয়ে পড়ে দেশজুড়ে। দলের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও সাক্ষাৎকার সেই আমেজে যোগ করে বাড়তি মাত্রা। ভোটের দিন পর্যন্ত একে ধরে রাখতে চান তৃণমূল নেতারা।

মনোনয়নপ্রত্যাশীরা বলেন, ‘তারা যদি কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করে, তবে অবশ্যই আমরা প্রতিহত করার চেষ্টা করবো। সেটা যেভাবেই হোক আমরা প্রতিহত করবো। আমরা আমাদের ভোট আমরা দেবো। এবং সেই লক্ষ্যে সবাই ভোট কেন্দ্রে থাকবো। কেন্দ্র দখল ও ভোট কারচুপি রোধে এবার প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে সতর্ক অবস্থানে থাকবে বিএনপি।’

বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, ‘ভোটের আধিকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে তারা সহযোগিতা করবেন। আমাদের কর্মী-নেতারা সমস্ত শক্তি দিয়ে অনিয়ম প্রতিহত করবে। সেই প্রস্তুতি নিতেই আমরা বলেছি।’

দলটির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, ‘আমাদের কর্মী বাহিনী কৌশলগত কারণে কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে থাকবে। মার খেয়ে যদি মাটিতে পড়েও যাই, তবেই আমাদেরকে ডিঙিয়ে ভোটকেন্দ্র দখন করতে হবে।’

বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যাস সেলিমা রহমান, ‘রক্তের বিনীময়ে হলেও আমরা আমাদের কেন্দ্রকে পাহারা দেবো। এটা আমাদের সমস্ত নেতা কর্মীদের প্রতিজ্ঞা।’

বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আযম খান বলেন, ‘আমাদের নেতা-কর্মীরা জীবন বাজি রেখেই কেন্দ্রে থাকার চেষ্টা করবে। আমরা শুধু দেখছি পুলিশ এবং নির্বাচন কমিশনের আচরণ কি হয়।’

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘জনগণ প্রতিরোধ করবে। বাংলাদেশের জনগণ তাদের ভোটাধিকার বুঝে নেবে। কাউকে ভোটকেন্দ্র যেতে দেবে না- এটা হবে না।’

সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে হলেও, ফল ঘোষণা পর্যন্ত নেতাকর্মীরা মাঠে থাকবে বলেও জানান বিএনপি’র শীর্ষ এই নেতারা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত