প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঈশ্বরগঞ্জে জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে গুলি ও ভাংচুর, আহত ৩

বাংলাদেশ প্রতিদিন : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে জাতীয়পার্টির কার্যালয়ে আওয়ামীলীগের হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা হয়েছে। রোববার রাত ৮টার দিকে ওই হামলা চালানো হয়। এ সময় তারা তিনটি মটরসাইকেল ও অফিসের আসবাবপত্র ভাংচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল ছুড়েছে পুলিশ। ওই ঘটনায় জাতীয়পার্টির তিন নেতা আহত হয়েছেন। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুছ ছাত্তারের সমর্থকরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ জাপা নেতাদের। এসময় তিনটি মোটরসাইকেল ও জাপা অফিসের আসবাবপত্র ভাঙচুর করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল ছুড়েছে পুলিশ।

হামলায় জাতীয় পার্টির তিন নেতা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ আওয়ামী লীগের ১০ নেতাকর্মীকে আটক করেছে। বর্তমানে ওই এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। এর আগে, রোববার বেলা ১২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত উপজেলা সদরের মুক্তিযোদ্ধা চৌরাস্তা মোড়ে ‘নৌকা সমর্থক গোষ্ঠী’র ব্যানারে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করে আব্দুছ ছাত্তারের সমর্থকরা। পরে রাত ৮টার দিকে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জাতীয় পার্টির স্থানীয় নেতাদের অভিযোগ, রাত ৮টায় ছাত্তারের সমর্থকরা পৌর সদরের পশু হাসপাতাল রোডে অবস্থিত জাতীয় পার্টির দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর শুরু করে। এ সময় জাপার কার্যালয় লক্ষ্য করে গুলি ও ককটেল ছুড়তে থাকে। এসময় কার্যালয়ের সামনে থাকা দু’টি মোটরসাইেকল ও পাশের বাসায় থাকা আরেকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। পরে সংসদ সদস্য ফখরুল ইমামের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে দিতে মুক্তিযোদ্ধা মোড় এলাকায় এসে আরও কয়েকটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায় তারা।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহমেদ কবির হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৩ রাউন্ড রাবার বুলেট ও এক রাউন্ড টিয়ারসেল ছোড়া হয়েছে। পৌর সদরের বিভিন্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১০ জনকে আটক করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ