Skip to main content

বালি রিসোর্টে মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ

রাশিদ রিয়াজ : কিছু হোটেল ও রিসোর্ট তাদের ক্রেতাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের অফুরন্ত সুযোগের কথা বলে আকর্ষণ সৃষ্টি করলেও ইন্দোনেশিয়ার বালিতে আয়ানা রিসোর্ট ও স্পা’মে মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিশেষ করে পর্যটকরা যখন পুলে থাকবেন তখন তারা মোবাইল ফোন একেবারেই ব্যবহার করতে পারবেন না। এমনকি স্মার্ট ফোনসহ কোনো ধরনের ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইসও নয়। সিএনএন প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সেখানে আগত অতিথিদের এ নিয়ম মেনে চলতে হবে। মোবাইল ফোন ও এধরনের ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস হয় জমা দিয়ে আসতে হবে অথবা রুমে রেখে আসতে হবে। পুলে তারা যখন সাঁতার কাটবেন বরং সেদিকেই বেশি মনোযোগ দিতে নাকি সেখানে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা বোঝা মুস্কিল। এমনকি আই প্যাডও বহন করা যাবে না। ডিজিটাল ক্যামেরাও নয়। ট্যাবও নয়। সিএনএন ট্রাভেলকে ওই রিসোর্টের এক আয়েঅজক বলেন আমাদের অতিথিরা এখানে সত্যিকারের অবসর কাটাতে আসেন। তাকে কোনো রকম বিড়ম্বনায় বা বিরক্ত যাতে না হতে হয় সেজন্যেই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। কেউ পুলে বই পড়েন, সাময়িকীতে চোখ বুলান এবং সূর্য ¯œান করেন। কেউ কার্ড খেলায় বেশ মনোযোগী হয়ে উঠেছেন তো এসময় কারো মোবাইল ফোনের রিংটোন বেখাপ্পা হয়ে উঠতেই পারে। ওয়ান পোলের এক জরিপে দেখা গেছে ৫৩ শতাংশ মার্কিন পর্যটক কখনোই চলার পথে মোবাইল ফোন বন্ধ রাখেন না। এধরনের অভ্যাসকে ‘নোমোফোবিয়া’ বলা হয়।

অন্যান্য সংবাদ