প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্যে টিকে থাকতে দেড় হাজার কোটি ডলারের কর ছাড় ট্রুডোর

রাশিদ রিয়াজ : যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেশি দেশ হিসেবে কানাডা বাণিজ্যে টিকে থাকতে বিভিন্ন বিধি শিথিল সহ দেড় হাজার কোটি ডলার কর ছাড় দিচ্ছে। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এ ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, আগামী ৬ বছরে এধরনের বিশেষ কর ছাড়ে তার দেশ আন্তর্জাতিকভাবে বাণিজ্য প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারবে। যুক্তরাষ্ট্রে বেসরকারি খাত ব্যাপকভাবে সম্প্রসারণ হওয়ায় প্রতিবেশি দেশ হিসেবে কানাডা এধরনের কর ছাড়ের কৌশল নিয়েছে। সিএনএন

সমালোচকরা বলছেন, ট্রুডোর এধরনের কর ছাড়ের সিদ্ধান্তে দেশটির বাজেট ঘাটতি আরো বৃদ্ধি করবে কিন্তু বিনিয়োগ যাতে কানাডা থেকে যুক্তরাষ্ট্রমুখী না হয়ে পড়ে সেজন্যে একপ্রকার বাধ্য হয়েই এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি কানাডা মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি করতে চীন ও আসিয়ানের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। আর সর্বশেষ কর ছাড়ের ঘোষণায় কানাডায় বিনিয়োগকারীরা ব্যাপক মূলধন হ্রাসের সুযোগ পাবেন।

এমনিতে কানাডার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার রয়েছে ১.৯ শতাংশে। এক বছর আগেও এ হার ছিল ৩.৮ শতাংশে। এখন কর ছাড়ের ঘোষণায় দেশটির অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার হবে ধারণা করা হচ্ছে। ট্রুডোর বিরোধী পক্ষ কনজারভেটিভ পার্টি দেড় হাজার কোটি ডলারের কর ছাড় যথেষ্ট নয় বলছে। তবে কানাডার বাজেট ঘাটতি চলতি অর্থবছরে ১৩.৬৭ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে এবং আগামী চার বছরে এ ঘাটতি আরো বৃদ্ধি পাবে। একই সঙ্গে কানাডার বর্তমানে দেশটির ঋণের পরিমান ৫১৯.৭৬ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ২০২৩ সাল নাগাদ ৫৭৭.৯৩ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছাবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ