প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জুভেন্টাসে ৫০ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন রোনালদো

রাকিব উদ্দীন : ছুটি কাটিয়ে লন্ডন থেকে ফিরেই শনিবার রাতে স্পালের বিপক্ষে গোল করে জুভেন্টাসকে জয়ের মুখ দেখান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তুরিনের অ্যালিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে লিগ তালিকার ১৫ নম্বরে থাকা দুর্বল স্পালের বিরুদ্ধে ২-০ জিতেছে মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রির দল।

২৮ মিনিটের সময় গোল পান এই পর্তুগিজ মহাতারকা। মিরালেম পিয়ানিচের ভাসানো ফ্রি-কিকে পা ছুঁইয়ে সহজেই গোল করেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক তারকা। এই গোলের মধ্যদিয়ে জুভ জার্সিতে ৫০ বছরের একটি রেকর্ড স্পর্শ করেন তিনি। ১৩ ম্যাচে এটি তার নবম গোল। ১৯৬৮-৬৯ মৌসুমে ভার্সি থেকে জুভেন্টাসে এসে ১৩ ম্যাচে ৯ গোল করেছিলেন পিয়ের্তো আনতাসি। তারপর আর কোনো খেলোয়াড় তুরিনে এসে প্রথম ১৩ ম্যাচে ৯ গোল করতে পারেনি।

চলতি মৌসুমে লিগে জুভদের করা মোট ২৮ গোলের অর্ধেকেই সরাসরি অবদান আছে রোনালদোর। নিজে ৯ গোল করার পাশাপাশি অ্যাসিস্ট আছে পাঁচটি। আর সব মিলিয়ে ১৬ ম্যাচে তার গোল ১০টি, অ্যাসিস্ট ছয়টি।

প্রথম গোলের পর একের পর এক সুযোগ তৈরি হলেও গোল করতে পারেননি সিআর সেভেন। সুযোগ তৈরি করে ব্যর্থ হন ডগলাস কস্তাও।

ম্যাচের ৬০ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন মারিও মানজুকিচ। সেখানে অবদান ছিল রাইট উইং ব্রাজিলিয়ান কস্তার। বক্সের বাইরে থেকে শট করেন নে তিনি। তার জোরালো শট কোনোরকমে সামলান প্রতিপক্ষ গোলকিপার। কিন্তু ক্রোয়েশীয় স্ট্রাইকারের নজর এড়াতে পারেননি। বক্সের মধ্যে শিকারির মতো অপেক্ষা করছিলেন তিনি। ফিরতি বলে আলতো ছোঁয়ায় জালে জড়িয়ে দেন। এটি ছিল মানজুকিচের মৌসুমে ছয়নম্বর গোল।

এই ম্যাচ সহজে জিতলেও আলেগ্রির দলকে পরের মাসে দিতে হবে কঠিন পরীক্ষা। ফিওরেন্তিনা, ইন্টার মিলান ও রোমার সঙ্গে খেলতে হবে তাদের। তার আগে সহজ পরীক্ষায় পাশ করে গেলেন রোনালদো-দিবালারা।

১৩ ম্যাচে ৩৭ পয়েন্ট পেয়ে লিগের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে আলেগ্রির দল। তাদের পয়েন্টের ধারে কাছেও নেই দ্বিতীয় স্থানে থাকা নাপোলি। ১২ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট তাদের। তৃতীয় স্থানে ১২ ম্যাচ খেলে ২৫ পয়েন্টে রয়েছে ইন্টার মিলান। আগামী সপ্তাহে ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ রয়েছে জুভেন্টাসের। সূত্র : গোলডটকম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ