Skip to main content

গায়েবি মামলার পদক তারেক রহমানকেই দিতে হবে : নওফেল

জুয়েল খান : আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চেীধুরী নওফেল বলেছেন, গায়েবী মামলার কথা বলা হলে ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার মামলাকে গায়েবি মামলা বলা যায়। কারণ একজন জজমিয়াকে আসামি সাজিয়েছিলো ঘটনার ধামাচাপা দেয়ার জন্য। শনিবার রাতে এটিএন নিউজের এক আলোচনায় তিনি একথা বলেন। তিনি বলেন, বিএনপি বলছে, লাখ-লাখ মানুষকে এই সরকার গয়েবি মামলা দিয়েছে কিন্তু আসলে এটা মিথ্যা কথা। কারণ বিএনপি এখন পর্যন্ত সরকারের কাছে গায়েবি মামলার তালিকা দিয়েছে সেখানে মাত্র ১ হাজার ২০ জনের নাম রয়েছে। যদিও লাখ- লাখ মানুষের নামে সরকার মামলা দিয়ে থাকে তাহলে এই তালিকা কেনো। নওফেল বলেন, খালেদা জিয়াকে যখন কারাগারে নেয়া হলো তখন তিনি তার নেতাকর্মীদেরকে বলে গেলেন, আর সহিংস আন্দোলন করা যাবে না। এবার অহিংস আন্দোলন করতে হবে। খালেদা জিয়ার এই কথার মাধ্যমে তিনি স্বীকার করে গেলেন যে, আগে তারা সহিংস আন্দোলন করেছেন এবং এত মানুষ জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলনে মারাগেছে তাদের দায়ভার বিএনপিকেই নিতে হবে। এখন এই মানুষ হত্যার মামলা দেয়া হলে বিএনপি সরকারের নামে বদনাম করে বলছে যে, তাদের নেতাকর্মীদের উপর গায়েবি মমলা দেয়া হচ্ছে। আসলে গায়েবি মামলার এই কথাটাই মিথ্যা এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আওয়ামী লীগকে বদনাম করার জন্যই বলা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, বিএনপি এখন সরকার পতনের আন্দোলন করছে। এটা সম্পূর্ণ বেআইনি। বিএনপি যদি দেশের মানুষে মৌলিক অধিকার নিয়ে আন্দোলন করে তাহলে দেশের মানুষ তাদের সাথে থাকবে কিন্তু এখন দেশের মানুষ এই সরকারের পতন চায়না। তাই জনগণ বিএনপিকে সমর্থন করে না। এক প্রশ্নের জবাবে নওফেল বলেন, দুর্নীতিতে বিএনপির সবচেয়ে বেশি অপরাধী খালেদা জিয়া, তিনি এখন জেলে আর তার ছেলে তারেক রহমান পলাতক । তারেক রহমান যদি সত্যি সৎ সাহসী হন তাহলে দেশে আসুন। আর এসব কারণেই বিএনপির ওপর মানুষের কোনা আস্থা নেই। তিনি আরো বলেন, দেশের মানুষ উন্নয়ন চায়। তাই তারা আওয়ামী লীগ সরকারের ওপর আস্থা রাখে। এই সরকার এখন দেশে যে উন্নয়ন করেছে, আমাদের ইতিহাসে আজ পর্যন্ত এতোবড় উন্নয়ন শুধুমাত্র সেখ হাসিনার সরকার করেছে।

অন্যান্য সংবাদ