প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রফতানি বাড়াতে পণ্য উৎপাদনে আরও উদ্ভাবনী হতে হবে

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভবিষ্যতে রফতানি বাড়ানোর ক্ষেত্রে পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে আমাদের আরও উদ্ভাবনী হতে হবে। জাতীয় রফতানি ট্রফি প্রদান উপলক্ষে শনিবার এক বাণীতে তিনি একথা বলেন।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে রফতানিতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ জাতীয় রফতানি ট্রফি প্রদানের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের মতো একটি উন্নয়নশীল দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে রফতানি খাতের গুরুত্ব অপরিসীম। দেশে বিনিয়োগ বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের কর্মকাণ্ডে গতি আনয়নের ক্ষেত্রে রফতানি খাত বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখে চলেছে।

প্রধানমন্ত্রী রফতানি বাণিজ্যে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে দেশের সমৃদ্ধিতে অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ জাতীয় রফতানি ট্রফির জন্য মনোনীতদের অভিনন্দন জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী করে বিশ্ব দরবারে একটি মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠা করতে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে রূপকল্প ২০২১ এবং ২০৪১ ঘোষণা করা হয়েছে। তাছাড়া ২১০০ সালের জন্য ডেল্টা প্ল্যানও প্রণয়ন করা হয়েছে।

এই রূপকল্প বাস্তবায়নে সরকার স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে- উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও রফতানি খাতের বিকাশে বিভিন্ন প্রকার সহায়ক নীতিমালা প্রণয়নের পাশাপাশি রফতানি কার্যক্রম জোরদার করার লক্ষ্যে আর্থিক প্রণোদনা ঘোষণা করেছে। সরকার দেশের রফতানি সম্প্রসারণে বাজার ও পণ্যের বহুমুখীকরণের ওপরও গুরুত্বারোপ করেছে।

তিনি বলেন, সরকার দেশের রফতানি খাতের ক্রমাগত উন্নয়ন এবং ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণে ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করছে।

শেখ হাসিনা যে সব উদ্যোক্তা রফতানি বাড়ানোর মাধ্যমে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ রাখতে সক্ষম হয়েছেন তার স্বীকৃতি হিসেবে রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মানিতকরণের উদ্যোগ গ্রহণ করায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ