প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আ স ম ফিরোজ নির্বাচন করতে পারবেন না : রিটকারীর আইনজীবী

এস এম নূর মোহাম্মদ : সোনালী ব্যাংক থেকে আ স ম ফিরোজের নেওয়া ঋণের সুদ মওকুফ ও নবমবারের মত ঋণ পুনঃতফসিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ সংক্রান্ত রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

এছাড়া ঋণ বারবার পুনঃতফসিল করার ক্ষেত্রে আইনি বাধ্যবাধকতা মানতে সোনালী ব্যাংক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যর্থতা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। সোনালী ব্যাংক ও বাংলাদেশ ব্যাংকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

পটুয়াখালীর বাউফলের পৌর মেয়র মো. জিয়াউল হকের করা রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দেন। আদালতে রিটকারীর পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ। সঙ্গে ছিলেন এম মাইনুল ইসলাম। এদিকে হাইকোর্টের এ আদেশের ফলে পটুয়াখালী-২ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য ফিরোজ একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন রিটকারীপক্ষের আইনজীবী।

আদেশের পর মাইনুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং রেগুলেশনস অ্যান্ড পলিসি ডিপার্টমেন্টের (বিআরপিডি) ১৫তম সার্কুলার অনুযায়ী ঋণ তিনবারের বেশি পুনঃতফসিল করা যায় না। কিন্তু মেসার্স পটুয়াখালী জুট মিলস লিমিটেডের নামে আ স ম ফিরোজের নেওয়া ঋণ সোনালী ব্যাংক নয়বার পুনঃতফসিল করেছে। এ আদেশের ফলে আ ফ ম ফিরোজ এখন ঋণ খেলাপি। আর আইন অনুযায়ী ঋণ খেলাপি ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ