প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘মুখোশ’ উদযাপনের কারণ জানালেন দিবালা

স্পোর্টস ডেস্ক : বিশ্বের প্রতিটি খেলোয়াড়েরই আলাদা আলাদা উদযাপনের স্টাইল থাকে। হোক সেটা ক্রিকেট কিংবা ফুটবল। তবে ফুটবলে গোল করার পরের উদযাপনটা সবারই নজরে আসে। তাই তারকা ফুটবলাররাও চান ভিন্নধর্মী কিছু উযাপন করতে। যেমন- লিওনেল মেসি দুহাত উঁচিয়ে আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকেন, যার নাম পয়েন্ট টু হেভেন কিংবা ক্রিচিয়ানো রোনালদোর বাতাসে ১৮০ ডিগ্রি ঘুঁরে ল্যান্ডিং। এ ধরনের উদযাপন ফুটবল সমর্থকদের কাছে খুবই জনপ্রিয়।

বর্তমান বিশ্বের সেরা এই দুই ফুটবলার ছাড়াও মারিও বালোতেল্লির জার্সি খুলে ‘মাসেল ফ্লিক্স’, লুইজ সুয়ারেজের ‘দ্যা রিষ্ট কিস’, অথবা ড্যানিয়েল স্টুরেজের ‘দ্যা স্টুরেজ ড্যান্স’ বাড়তি আনন্দ যোগ করে ফুটবল প্রেমীদের মাঝে। এতসব উদযাপনের মাঝে আর্জেন্টাইন তারকা পাউলো দিবালার উদযাপনটি ভক্তকুলের মাঝে আলাদাভাবে নজর কাড়ে।

আর্জেন্টিনা হোক কিংবা জুভেন্টাস, গোল পেলেই হাত দিয়ে অর্ধেক মুখ ঢেকে ছুটতে থাকেন ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। যে উদযাপনের নাম দেয়া হয়েছে ‘দিবালা মাস্ক’। ঠিক কি কারনে এই মাস্ক উযাপন করেন সেই মাস্কের রহস্য প্রকাশ করেছেন তিনি নিজেই।

গত বুধবার ইতালির মিলানে অনলাইন ভিত্তিক গেম ‘ফিফা ১৯’ এর নতুন সংযোজন ‘নিউ কোপা ১৯’ উন্মোচন অনুষ্ঠানে দিবালা। সেই অনুষ্ঠানেই আর্জেন্টাইন সেনসেশন জানান ২০১৬ সালের সুপার কাপে এসি মিলানের বিপক্ষে একটি ম্যাচে জন্ম হয় এই উদযাপনের।

ওই ম্যাচে একটি পেনাল্টি মিস করে হতাশ হয়ে যান তিনি। এরপর টেলিভিশনে গ্ল্যাডিয়েটর সিনেমাটি দেখেন এবং ভাবেন পরবর্তী গোলটি হবে গ্ল্যাডিয়েটরের মতো। এরপর থেকেই প্রায় প্রতি গোলেই জুভেন্টাসের নাম্বার টেনের গ্ল্যাডিয়েটর উদযাপন বাঁ দিবালা মাস্ক দেখতে পান তার সমর্থকরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ