প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কলকাতার নতুন মেয়র ফিরহাদ হাকিম

রাশিদ রিয়াজ : পদত্যাগপত্র দিলেন কলকাতার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এজন্যে শোভনকে ধন্যবাদ জানান। এরপর কলকাতার নতুন মেয়র হচ্ছেন পুর এবং নগরোন্নায়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। স্বাধীনতার পর এই প্রথম কলকাতা করপোরেশনে প্রথম কোনো মুসলিম মেয়র হচ্ছেন। ডেপুটি মেয়র হচ্ছেন অতীন ঘোষ। এর আগে নিরাপত্তারক্ষীর হাত দিয়ে ইস্তফাপত্র পাঠান শোভন। সেই ইস্তফা গ্রহণ করেন পুরসভার চেয়ারপার্সন মালা রায়। কিন্তু পদত্যাগ করতে পুরসভায় যাননি শোভন। টাইমস অব ইন্ডিয়া

নিয়ম অনুযায়ী মেয়র পদত্যাগ করার এক মাসের মধ্যে নতুন মেয়র নির্বাচন করতে হয়। সেই নিয়ম মেনেই রাজ্য সরকারের কাছে মেয়র নিয়োগের আবেদন পাঠাচ্ছেন পুরসভার চেয়ারপার্সন মালা রায়। মন্ত্রী পদে শোভন চট্টোপাধ্যায় ইস্তফা দেওয়ার পর থেকেই সরগরম হয়ে উঠেছে পশ্চিমবাংলার রাজনীতি। শোভনকে যে ‘মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দিতে বলা হয়েছে’ তা জানিয়েছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রীই।

আগে কাউন্সিলর ও মেয়র পারিষদ হিসেবে কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে ফিরহাদ হাকিমের। বর্তমানে কাউন্সিলর নন ফিরহাদ হাকিম। এবং পুরসভার বর্তমান আইন অনুযায়ী শুধুমাত্র কাউন্সিলরদেরই মেয়র করা যায়। যদিও সেইমতো পুর আইন সংশোধনীর বিল বিধানসভায় পাশ করেছে রাজ্য সরকার। এই সংশোধনী অনুযায়ী, কাউন্সিলর নন, এমন ব্যক্তিও মেয়র হতে পারবেন। তবে তাঁকে ৬ মাসের মধ্যে কোনও ওয়ার্ড থেকে জিতে আসতে হবে।

এদিকে, মেয়রের ইস্তফা প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বিধানসভায় বলেন, ‘মেয়র পদত্যাগ করেছেন। কাউন্সিলর একটা টেকনিক্যাল টার্ম। এটা বড় বিষয় নয়।’

পদত্যাগী মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় শুধু মেয়রই ছিলেন না। তিনি রাজ্যের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বেও ছিলেন। একাধারে তিনি ছিলেন পরিবেশ, দমকল ও আবাসনমন্ত্রী। এ ছাড়া তাঁকে দেওয়া হয়েছিল দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতির দায়িত্ব। অবশ্য এর আগে তাঁকে পরিবেশ মন্ত্রণালয় ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার সভাপতির পদ থেকে সরানো হয়েছিল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত