Skip to main content

জেএমবি ও সর্বহারা পার্টির সদস্যদের আবারো সংগঠিত হওয়ার আশঙ্কা

রওশন আরা তানিয়া : নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন (জেএমবি) ও সর্বহারা পার্টির সদ্যসদের মধ্যে জামিনে ও পালিয়ে থাকাদের নিয়ে শঙ্কিত নওগাঁবাসী। আর নির্বাচন ঘিরে আবারো নাশকতার আশঙ্কা প্রকাশ্য করে প্রশাসনের সহয়তা চেয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। পুলিশের দাবি যেকোনো নাশকতারোধে জামিনে থাকা ব্যক্তিদের গতিবিধির ওপর নজরদারি রয়েছে তাদের। সময় টিভি নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন জেএমবি ও সর্বহারা পার্টির ১৫০ সদস্য নওগাঁয় বিভিন্ন মামলায় জামিনে রয়েছে। ২০০৪ ও ২০০৫ সালে বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের সময় সর্বহারা দমনের নামে জেএমবি এবং বাংলা ভাইয়ের উত্থান ঘটে জেলার আত্রাই  ও রানীনগর উপজেলায়। সে সময় হত্যা, গুম, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগসহ নানা অভিযোগে একাধিক মামলায় বেশিরভাগ জঙ্গিসদস্যকে আটক করে পুলিশ। আবার কিছু মামলার সাজা ভোগ করার পর অনেকে ছাড়া পায়। স্থানীয়রা বলছে জাতীয় নির্বাচনের আগেই জামিনে থাকা অনেক সদস্য মহড়া প্রর্দশন করায় আতঙ্ক দিন দিন বেড়ে উঠছে। নওগাঁ জেলার কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট মহসীন রেজা বলেন, অবৈধ অস্ত্রধারীদেরকে গ্রেপ্তার করা, যারা জঙ্গিবাদে বিশ্বাসী তাদের গ্রেপ্তার করায় প্রশাসনেরযেন দৃষ্টিপাত করে। তবে জেলা পুলিশের অন্যতম র্শীষ কর্মকর্তা জানান, যেকোনো নাশকতা রোধে জামিনে ও পালিয়ে থাকা সর্বহারা এবং জঙ্গি সদস্যদের ওপর নজরদারি রাখা হচ্ছে। এছাড়া আরো তথ্য অনুযায়ী জঙ্গি সংক্রান্ত ৩৩ টি মামলায়, ১৮ জন জেল হাজতে, ১৪১ জন জামিনে এবং ২১ জেএমবি ও সর্বহারা সদস্য পালিয়ে রয়েছে।

অন্যান্য সংবাদ