প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিরোধী দলকে দমনে রাষ্ট্রকে দৈত্য বানালে তা হবে বুমেরাং: জুনায়েদ সাকি

অপু খান : গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেছেন, সংবিধান হচ্ছে জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন। যখন সংবিধান পরিবর্তন হবে তখন পরিস্থিতি পরিবর্তন হবে। বুধবার রাতে বাংলাভিশনের ‘ইলেকশন এক্সপ্রেস’ টকশোতে তিনি এ কথা বলেন।

জোনায়েদ সাকি বলেন, বাংলাদেশে বিদ্যমান মল্লযুদ্ধের পরিস্থিতিটা একটি শাসন থেকে আরেকটি শাসন, যা খারাপই হতে থাকবে। ক্ষমতার একচেটিয়াকরণ সম্ভব হয় এই সাংবিধানিক কাঠামোর ফলে, এটা তারই ফলাফল। এই মল্লযুদ্ধ থেকে বাংলাদেশের রাজনীতিকে বের করতে হবে।

তারেক রহমানের স্কাইপেতে কথ বলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আদালত কর্তৃক তার দ- আছে তিনি এভাবে কথা বলতে পারেন কি না তা আদালত বা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জবাব দিতে পারে। কিন্তু আপনি তো স্কাইপি বন্ধ করে দিতে পারেন না। স্কাইপ বন্ধ করে দিয়ে জনগণের অধিকার খর্ব করছে। এটা কিন্তু নির্বাচনকালীন সরকারের ভুমিকা হতে পারে না।

তিনি আরো বলেন, একটি গণতান্ত্রিক, সমতল, ন্যায় বিচার, নাগরিক মর্যাদার বাংলাদেশ যদি চাই তাহলে ‘ভোট’ হচ্ছে এর প্রথম ন্যায্যতা। ভোটের মাধ্যমে মানুষ অপশক্তিকে মোকাবেলা করতে পারবে। বিরোধীপক্ষকে দমন করার জন্য রাষ্ট্রকে দৈত্যাকার বানালে তা হবে বুমেরাং। রাষ্ট্র বনাম জনগন এই দ্বন্ধের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্র ফাংশন করে। রাষ্ট্রকে শক্তিশালী করে, জনগণকে ক্ষমতাহীন করে নির্বাচন প্রক্রিয়ার উপর যেভাবে দখল হচ্ছে তা জনগণের ভোট দেয়া থেকে ঠেলে দিচ্ছে। সূত্র: বাংলাভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ